উখিয়ারর রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে ইউএসএআইডি’র প্রতিনিধি দল

উখিয়ারর রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে ইউএসএআইডি’র প্রতিনিধি দল
শ.ম.গফুর,উখিয়া(কক্সবাজার) প্রতিনিধি ;; মিয়ানমার সরকার বিতাড়িত এপারে আশ্রিত বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী বিশ্বের সবচেয়ে বড় মানবিক সঙ্কটের জন্ম দিয়েছে উল্লেখ করেছেন ইউএন এজেন্সি ফর ইন্টারন্যাশলান ডেভলপম্যান্টের (ইউএসএআইডি) প্রশাসক মার্ক গ্রিন।তিনি বলেছেন, মিয়ানমার থেকে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর আপদকালীন জরুরি সহায়তা হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র পূর্ব ঘোষণার অতিরিক্ত ৪৪ মিলিয়ন ডলার প্রদান করেছে।    ইউএসএআইডি’র মাধ্যমে অতিরিক্ত এ অর্থ প্রদান করা হয়। এর ফলে ২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট থেকে সৃষ্ট এ সংকটে মিয়ানমার ও বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তার পরিমাণ দাঁড়াল ২০৭ মিলিয়ন ডলারেরও বেশি। ২০১৬ সালের অক্টোবর থেকে মিয়ানমার ও মিয়ানমার থেকে আগত বাস্তুচ্যুত জনগোষ্ঠীর জন্য মোট মানবিক সহায়তার পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২৯৯ মিলিয়ন ডলার ছাড়িয়েছে।   গতকাল মঙ্গলবার  কক্সবাজারের কুতুপালং রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবির পরিদর্শন শেষে  ইউএসআইডি প্রশাসক মার্ক গ্রিন এ নতুন অর্থসহায়তার ঘোষণা দেন। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত মার্শিয়া স্টিফেন্স ব্লুম বার্নিকাটসহ পদস্থ কর্মকর্তারা।  এসময় তিনি আরো বলেন, বিশ্বের সর্ববৃহৎ মানবিক দাতা হিসেবে, যুক্তরাষ্ট্র বার্মা-বাংলাদেশ সীমান্তের দু’পাশে জরুরি প্রয়োজন মেটাতে সক্রিয়ভাবে সাড়া দিচ্ছে। জরুরি এ তহবিল ঘোষণার ফলে গত বছরের আগস্ট থেকে এ সঙ্কটে ইউএসএআইডি’র মোট সহায়তার পরিমাণ দাঁড়াল ১০০ মিলিয়ন ডলারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*