কাপ্তাই এ প্রশাসনের আহবানে ১৫ টি আশ্রয়কেন্দ্রে ৩০০ পরিবার ঠাঁই

কাপ্তাই এ প্রশাসনের আহবানে ১৫ টি আশ্রয়কেন্দ্রে ৩০০ পরিবার ঠাঁই

ঝুলন দত্ত, কাপ্তাই।।কাপ্তাই উপজেলা প্রশাসনের অনুরোধে ১৫টি অাশ্রয়কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণভাবে বসবাসকারী ৩’শতাধিক পরিবার এবং তাদের পরিবারের সদস্যরা আশ্রয় গ্রহন করেছেন বলে জানিয়েছেন কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহল আমীন। এদিকে গতকাল(সোমবার) রাতে কাপ্তাইয়ের শিল্প এলাকা, লক গেইট, ওয়াগ্গার মুরালীপাড়া, কুকিমারা, বারোঘোনিয়া ফার্ম এলাকা, সিনেমাহল এলাকা সহ বিভিন্ন স্থানে ব্যাপক পাহাড় ধ্বস হয়েছে। অাশ্রয় শিবিরে অবস্থান নেওয়ায় কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি এখনো। তবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ লক্ষাধিক হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এদিকে অাজ ( মঙ্গলবার) সকালে উপজলার বিভিন্ন অাশ্রয়কেন্দ্র পরিদর্শনে অাসেন কাপ্তাই উপজেলা চেয়ারম্যান দিলদার হোসেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল অামিন, কাপ্তাই উপজেলা অাওয়ামীলীগ সভাপতি অংসুইছাইন চৌধুরী, কাপ্তাই ইউপি চেয়ারম্যান অাব্দুল লতিফ, ওয়াগ্গা ইউপি চেয়ারম্যান চিরঞ্জিত তনচংগ্যা। এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল অামিন অাশ্রয় শিবিরে অবস্থান নেওয়া ছোট্ট শিশুদের মধ্যে চিপস বিতরণ করেন। অাশ্রয় শিবিরে অাজ রাতে খিচুরি খাওয়ানো হবে বলে জানান তিনি। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল অামীন জানান,ঝুঁকিগ্রস্থরা গতকাল থেকে অাশ্রয়কেন্দ্রে অাসতে শুরু করেছে। অাজ পর্যন্ত প্রায় তিন শতাধিক লোক অাশ্রয় শিবিরে অবস্থান নিয়েছে। তবে রাতের মধ্যে এর সংখ্যা ছাড়িয়ে যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তিনি অারও বলেন, তথ্য অফিসের মাধ্যমে প্রতিটি এলাকায় মাইকিং করে বলে দিয়েছি ঝুঁকিগ্রস্থদের অাশ্রয়কেন্দ্রে অবস্থান নিতে। যদি সরকারি নির্দেশ কেউ অমান্য করে তাহলে তাঁদেরকে ভ্রাম্যমান অাদালতে মাধ্যমে সাজা প্রদান করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*