গোপালগঞ্জের সাতপাড় গ্রামে লুটপাট ও অবৈধ ভাবে বাড়ি দখলের অভিযোগ

গোপালগঞ্জের সাতপাড় গ্রামে লুটপাট ও অবৈধ ভাবে বাড়ি দখলের অভিযোগ
গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার সাতপাড় গ্রামের গোলদার পাড়ায় শষধর ওঝা ছেলে খোকন ওঝা বাড়ি লুটপাট ও অবৈধ ভাবে দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে।
সরেজমিন ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, একই এলাকার শষধর ওঝা ছেলে খোকন ওঝা জমি ক্রয় বাবদ মৃত নিরঞ্জন ওঝার স্থী অঞ্জলী ওঝাকে ২লক্ষ টাকা দেয়। টাকা পেয়ে জমি ও ঘরের দখল দিয়ে মেয়ের বাড়ি চলে যায় অঞ্জলী ওঝা। অঞ্জলী ওঝা টাকা নিয়ে তাদের জমি না দিয়ে গোপানে পার্শবর্তী সুকুমার গোলদারে ছেলে কালিপদ গোলদারকে বেশি টাকায় জমি কবলা করে দেয়। এই নিয়ে দুই পক্ষে মধ্যে বিভিন্ন দন্ড শুরু হয়।
খোকন ওঝা জানান, আমি জমি ক্রয় বাবদ অঞ্জলী ওঝাকে ২লক্ষ টাকা দেই। টাকা নিয়ে কালিপদ গোলদারকে বেশি টাকায় জমি কবলা করে দেয় এবং আমি জানতে পেরে প্রিয়েংশন করি। গতকাল বিকাল সাড়ে ৫টায় আমরা বাড়িতে না থাকায় কালিপদ গোলদার তার সন্ত্রাসী দিয়ে আমার ঘর ভেঙ্গে প্রায় ৩০মন ধান, সর্নাঅলংকার, ঘরে থাকা নগত টাকা লুট করে এবং আমার আসবাবপত্র বাহিরে ফেলে দেয়। খবর পেয়ে আমরা বাড়িতে গেলে আমার স্থী গীতা ওঝা ও আমাকে তার সন্ত্রাসী লোকজন দিয়ে মারপিট করে। পরে আমরা প্রান ভয়ে অন্য স্থানে চলে আসি। এ ব্যাপারে বৌলতলী তদন্ত কেন্দ্র একটি অভিযোগ করেছি।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত কালিপদ গোলদারের ছেলে কৃষ্ণ গোলদার জোর করে দখলের কথা স্বীকার করেন। তিনি বলেন, আমার বাবা অঞ্জলী ওঝার কাছ থেকে জমি ও বাড়ি কিনে নিয়েছে। এত দিন দখলে ছিলাম না এখন দখল নিয়েছি।
বৌলতলী তদন্ত কেন্দ্রর ওসি তদন্ত সাজেদুর রহমান বলেন, অভিযোগ পেয়ে আমি পুলিশ পাঠিয়েছি। তবে এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তি ও চেয়ারম্যান দ¦ায়িত্ব নিয়েছে বিষয়টা মিমাংশা করার জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*