চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিরাপত্তারক্ষীর ধাক্কায় রোগী মারা যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে…!

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে
নিরাপত্তারক্ষীর ধাক্কায় রোগী মারা যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে…!
চমেক সংবাদ দাতা: চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিরাপত্তারক্ষী (প্রহরীর) ধাক্কায় পড়ে এক রোগী মারা যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১০টার দিকে চমেক হাসপাতালের ১৭নং ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটেছে।
নিহতের স্বজনদের অভিযোগ, রোগীকে হাসপাতাল থেকে দ্রুত বের হওয়ার জন্য রাগন্বিত হয়ে ধাক্কা দেয় ওই প্রহরী। আর রোগী ধাক্কা সামালতে না পেরে পড়ে গিয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান। নিহত রোগীর নাম আবু তাহের বেলাল (৬৫)। চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের ভাটিয়ারী ইউনিয়নের মাদামবিবির হাট খাদেম পাড়ায় তার বাড়ি।
নিহত আবু তাহেরের ছেলে রাব্বি জানান, আগেরদিন সোমবার আব্বার রক্ত চেঞ্জ করার জন্য (ডায়লাসিস) চমেক হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখানে মঙ্গলবার রাতে চিকিৎসকরা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে আব্বুকে বাড়ি নিয়ে যেতে বলেন। তখন আমি বাড়িতে। আমার বোনোরা আমাকে ফোন করে বলে চকিৎসকরা আব্বুকে বাড়ি নিয়ে যেতে বলেছেন। তখনও আব্বু সুস্থ্য ছিলেন।
তবে রাত দশটর দিকে শাহ আলম নামে একজন দারোয়ান আব্বুকে দ্রুত বের করে নিয়ে যাওয়ার জন্য চাপ দিতে থাকে। সে জানায় “রাত ১০টা থেকে বেসরকারি ক্লিনিক সেভরণে তার ডিউটি আছে। তাড়াতারি বের হও” বলে ক্ষুদ্ধ হয়ে দাঁড়ানো থাকাবস্থায় আব্বুকে ধাক্কা মেরে ফ্লোরে ফেলে দেয়। এর পরপরই আব্বু ছটফট করতে করতে মারা যায়।
এ ব্যাপারে চমেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই জহিরুল বলেন, আবু তাহের নামে এক রোগির ডায়ালসিস করার পর ওয়ার্ড থেকে বের হওয়ার সময় পড়ে মারা গেছে। কেউ ধাক্কা দিয়েছে বা অপ্রীতির কোনো ঘটনা আমরা শুনিনি।
এদিকে আবু তাহেরের লাশ নিয়ে বিচারের দাবিতে রাত ১টা পর্যন্ত হাসপাতালেই অবস্থান করে ন। এ সময় নিহত আবু তাহেররেরে স্বজনরাও সেখানে উপস্থিত থাকে।
এ ব্যাপারে সিএমপি পাঁচলাইশ থানায় অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মহিউদ্দিন মাহমুদ বলেন, মৌখিক অভিযোগ পেয়ে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থ পরিদর্শন করেছে। তাদের বলেছি সকালে লিখিত অভিযোগ দিতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*