চবিসাসের কার্যনির্বাহী সদস্য আবদুল্লাহ রাকিবকে লাঞ্ছনা ও হত্যার হুমকি, চুয়েট সাংবাদিক সমিতির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ

চবিসাসের কার্যনির্বাহী সদস্য আবদুল্লাহ রাকিবকে লাঞ্ছনা ও হত্যার হুমকি, চুয়েট সাংবাদিক সমিতির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ

নিজস্ব প্রতিনিধি: পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির (চবিসাস) কার্যনির্বাহী সদস্য এবং অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগো নিউজের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক আবদুল্লাহ রাকিবকে দুজন ছাত্রলীগ কর্মী কর্তৃক লাঞ্ছনা ও হত্যার হুমকির ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন চুয়েট সাংবাদিক সমিতি। এই ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ।

এক যৌথ বিবৃতিতে চুয়েট সাংবাদিক সমিতির সভাপতি ইনজামাম উল হক এবং সাধারণ স¤পাদক নাজমুস সাকিব বলেন, ৮ জুলাই বেলা ১ টায় কোটা সংস্কারের দাবিতে ছাত্রীদের মানববন্ধন শেষে তিনজন ছাত্রী শহীদ মিনারের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় ছাত্রলীগ কর্মীরা তাদের লাঞ্ছিত করেন। এ ঘটনার সংবাদ সংগ্রহ ও ছবি তুলতে গেলে ছাত্রলীগ কর্মী আজাদ হোসেন সাব্বির জাগো নিউজের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক আবদুল্লাহ রাকিবকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন এবং মোবাইল কেড়ে নেন।

চুয়েট সাংবাদিক সমিতির নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, লাঞ্ছনাকারী ছাত্রলীগ কর্মী আজাদ হোসেন সাব্বির চবির রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী। এই ঘটনার পরে একই সাংবাদিককে জবাই করে হত্যার হুমকি দেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বিগত কমিটির উপ-দফতর স¤পাদক ও ভিএক্স গ্রুপের নেতা মিজানুর রহমান বিপুল। আমরা জানতে পেরেছি, হুমকি প্রদানকারী মিজানুর রহমান বিপুল ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কৃত এবং তার ছাত্রত্ব নেই। এছাড়াও তিনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের তাপস হত্যা মামলার চার্জশিটভুক্ত পলাতক আসামী।

চুয়েট সাংবাদিক সমিতির নেতৃবৃন্দ মনে করেন, হত্যা মামলার একজন পলাতক আসামীর প্রকাশ্য দিবালোকে ঘুরে বেড়ানো উদ্বেগজনক। পাশাপাশি সাংবাদিককে হত্যার হুমকি প্রদর্শন ন্যক্কারজনক এবং এটি মুক্ত সাংবাদিকতার জন্য হুমকিস্বরূপ। তাই এই ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*