জাতিসংঘের শুভেচ্ছাদূত হলিউড ও বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার রোহিঙ্গা ট্রানজিট পয়েন্ট ও রোহিঙ্গা  ক্যাম্প পরিদর্শন

জাতিসংঘের শুভেচ্ছাদূত হলিউড ও বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার রোহিঙ্গা ট্রানজিট পয়েন্ট ও রোহিঙ্গা  ক্যাম্প পরিদর্শন
আবদুর রাজ্জাক,কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি-২২ মে;; জাতিসংঘের শুভেচ্ছাদূত হলিউড ও বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া কক্সবাজারের টেকনাফ রোহিঙ্গা ট্রানজিট পয়েন্ট ও রোহিঙ্গা  ক্যাম্প পরিদর্শন করেছেন। তিনি আজ মঙ্গলবার(২২ মে) সকালে রয়েল টিউলিপ হোটেল থেকে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়ক দিয়ে সকাল ৯টা ৩২ মিনিটে হাঁড়িখালী পৌঁছান। পরে ইউনিসেফের প্রতিনিধিরা রোহিঙ্গারা যে পথে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করছে সেই ভাঙার স্থানে নিয়ে যান। সে পৌছে তিনি
গাড়ি থেকে নেমে সেই পথে কিছু সময় হাঁটাহাঁটি করেন। (যেখান থেকে নাফ নদী আর মিয়ানমার সরাসরি দেখা যায়)। সেখান থেকে গাড়িতে সকাল ৯টা ৫৫ মিনিটে টেকনাফের নেটং (উটনি) পাহাড়ের উদ্দেশে রওনা হন তিনি। এই পথে নাফ নদী দিয়ে মিয়ানমার থেকে কীভাবে রোহিঙ্গারা অনুপ্রবেশ করছে, তা প্রিয়াঙ্কার সামনে তুলে ধরা হয়। এখানে ১৫ মিনিট অবস্থান করেন তিনি।এরপর ল্যাদা বিজিবি চৌকির কাছে ইউনিসেফ পরিচালিত শিশুদের খেলাধুলার জন্য তৈরি স্থান পরিদর্শন করেন। সেখান থেকে তাঁর ল্যাদায় অস্থায়ী রোহিঙ্গা শিবিরে যাওয়ার কথা থাকলেও তিনি যাননি। পরে প্রিয়াঙ্কাকে নিয়ে ইউনিসেফের গাড়িবহর উখিয়ার বালুখালীতে স্থাপিত অস্থায়ী রোহিঙ্গা শিবিরের দিকে রওনা হয়।
উল্লেখ্য,গত ১৯ মে প্রিয়াঙ্কা প্রিন্স হ্যারি এবং মেগান মার্কলের বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। এরপর দুবাই থেকে এমিরেটস এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে গতকাল সকালে ঢাকায় আসেন তিনি। ঢাকায় তিন ঘণ্টা অবস্থানের পর ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটে কক্সবাজারে পৌঁছান প্রিয়াঙ্কা।জানা গেছে, কক্সবাজার রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করার জন্য বাংলাদেশে দুইদিন অবস্থান করবেন প্রিয়াঙ্কা। পাশাপাশি ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে কিছু কর্মসূচিতেও যোগ দেবেন বলিউডের এই অভিনেত্রী। এর আগে গত বছর সিরিয়ার যুদ্ধে আক্রান্ত শিশুদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি। চলতি বছরের মার্চ মাসে এক অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনের ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন এই অভিনেত্রী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*