তানোরে মসজিদের টাকা আত্মসাৎ করলেন আওয়ামীলীগ নেতা

তানোরে মসজিদের টাকা আত্মসাৎ করলেন আওয়ামীলীগ নেতা

সারোয়ার হোসেন,তানোর: রাজশাহীর তানোর উপজেলার চান্দুড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইউপি আওয়ামীলীগের সভাপতি মজিবর রহমানের বির“দ্ধে মসজিদের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে । এঘটনায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাঃ শওকাত আলী চেয়ারম্যান বরাবর নোটিশ করে তিন দিনের মধ্যে মসজিদে কাজ নইলে সরকারী কোষাগারে প্রকল্পের পুরো টাকা ফেরত দিতে নির্দেশ দিয়েছেন। কিš‘ রহস্যজনক কারনে কাজ ও টাকা জমা দেবার শেষ দিনেও কোন ব্যব¯’া গ্রহণ করা হয়নি। উপজেলার চান্দুড়িয়া ইউপি এলাকার রাতৈল দক্ষিনপাড়া জামে মসজিদে ঘটে রয়েছে ঘটনাটি । প্রাথমিক অব¯’ায় ঘটনাটি ধামাচাপা পড়ে থাকলেও নোটিশ জারির পর প্রকাশ পাবার কারনে ইউপি চেয়ারম্যান ও তার ভায়ের বির“দ্ধে বইছে সমালোচনার ঝড়। জানা গেছে ২০১৫-১৬ অর্থ বছরে গ্রামীন অবকাঠামো রক্ষনা বেক্ষন(টিআর) প্রকল্প হতে উপজেলার চান্দুড়িয়া ইউপি এলাকায় ১৪লাখ ৯৭ হাজার ৮৯৫টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। তার মধ্য থেকে চান্দুড়িয়া ইউপির রাতৈল দক্ষিনপাড়া জামে মসজিদে সোলার প্যানেল ¯’াপনের জন্য ৯০ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হয় । কিš‘ মসজিদ কমিটি রেজুলেশন জমা দিলেও সাক্ষর করে প্রকল্প টাকা উত্তোলন করেন ইউপি চেয়ারম্যান মজিবরের ভাই হাবিবুর রহমান। মসজিদ কমিটির সেক্রেটারি মোজাম্মেল জানান আমরা রেজুলেশন করে যাবতীয় কাগজপত্র পিআইও অফিসে জমা দিয়ে দীর্ঘ দিন অতিবাহিত হলেও প্রকল্পের টাকার কোন হুদিস পা”িছলাম না । গত মাসের ২৬ জুন প্রকল্পের টাকার ব্যাপারে পিআইও অফিস সহকারী জাকির কে অবহিত করলে অফিসের উমেদার খলিল বলে চেয়ারম্যানের ভাই হাবিবুর টাকা তুলে নিয়েছে । সে কিভাবে টাকা পেল জানতে চাইলে খলিল জানান ভুলবশত প্রকল্পের টাকা পেয়েছে । সেক্রেটারি আরো জানান পুরো ঘটনা নির্বাহী অফিসারকে অবহিত করা হলে কাগজপত্র দেখে ঘটনার সত্যতা পান । মসজিদ কমিটির সভাপতি মতিউর রহমান বলেন মসজিদে সোলার প্যানেল না দিয়ে টাকা তুলে নিয়ে চেয়ারমান ও তার ভাই আত্মসাৎ করেছেন । এর চেয়ে ঘৃনিত কাজ আর কি হতে পারে । জেলা পরিষদ সদস্য উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক আব্দুস সালাম বলেন এখানে চেয়ারম্যানের কোন ভুল নেই । কোম্পানী কাজ করেনি ইউএনও ভুল করে নোটশ দিয়েছেন ।তিনি আরো বলেন এসব নিয়ে খবর প্রকাশ করার দরকার নেই আগামী রোববারের মধ্যে সব সমাধান হবে । এলাকাবাসী বলেন সোলার প্যানেলের টাকা আত্মসাৎ করলেন চেয়ারম্যান ও তার ভাই । এদিকে জেলা পরিষদ থেকে বৃহস্পতিবার ৫০হাজার টাকা উত্তোলন করেছেন মসজিদের সেক্রেটারি মোজাম্মেল । এটাকা কয়ভাগে ভাগ হবে কে জানে ।পুরো প্রকল্প সরেজমিন তদন্ত করলেই বেরিয়ে পড়বে ভয়াবহ অনিয়ম । সুত্র জানায় চলতি মাসের ৯জুলাই মঙ্গলবার ইউএনওর সাক্ষরে ২২৩নং স্বারকে চান্দুড়িয়া ইউপির চেয়ারম্যানের কাছে একটি নোটিশ জারি করা হয় । সেখানে বলা হয় গ্রামীন অবকাঠামো রক্ষনা বেক্ষন(টিআর) প্রকল্পের আওতায় রাতৈল দক্ষিনপাড়া জামে মসজিদে সোলার প্যানেল ¯’াপনের জন্য ৯০ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছিল । কিš‘ সে প্রকল্পের কোন কাজ হয়নি । নোটিশ জারির তিন দিনের মধ্যে মসজিদে সোলার প্যানেল ¯’াপন নইলে ৯০ হাজার টাকা সরকারী কোষাগারে ফেরত দিতে হবে । এনিয়ে চান্দুড়িয়া ইউপির চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগ নেতা মজিবর রহমান নোটিশ জারির কথা অস্বীকার করে বলেন সোলারের কাজ আমাদের না এটা কোম্পনি করে দিবেন । মসজিদে না দিয়ে অন্যত্র দিয়েছেন । তাহলে ইউএনও আপনার নামে নোটিশ জারি করল কিভাবে জানতে চাইলে তিনি জানান আমার বরাবর কোন নোটিশ জারি হয়নি। নোটিশ আমার হাতে আছে প্রশ্ন করা হলে এড়িয়ে গিয়ে একই ধরনের কথা বলেন চেয়ারম্যান ।এবিষয়ে জানতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাঃশওকাত আলীর ব্যক্তিগত মোবাইলে একাধিকবার ফোন দেয়া হলেও রিসিভ করেননি তিনি । যার কারনে এসংক্রান্ত কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*