দুর্ঘটনা ও দুর্ভোগ কমাতে চৌমূহনী বাজার থেকে রাতারগুল পর্যন্ত রাস্তাটি প্রশস্ত করার দাবী এলাকাবাসীর

দুর্ঘটনা ও দুর্ভোগ কমাতে চৌমূহনী বাজার থেকে রাতারগুল পর্যন্ত রাস্তাটি প্রশস্ত করার দাবী এলাকাবাসীর

সিলেট জেলা প্রতিনিধি::একমাত্র ফ্রেশওয়াটার সোয়াম ফরেস্ট ‘বা জলাবন।সিলেটের সীমান্তবর্তী উপজেলা গোয়াইনঘাটের ৬নং ফতেপুর ইউনিয়নে এই জলাবনের অবস্থান।রাতারগুল সোয়ম ফরেস্ট জলাবনের প্রবেশের প্রধান রাস্তা হলো এয়ারপোর্ট-হরিপুর চৌমূহনী বাজার দিয়ে রাতারগুল গ্রামের পাকা রাস্তা প্রধান প্রবেশ মুখ। চৌমূহনী বাজার থেকে রাতারগুল সোয়াম ফরেস্ট রাস্তাটি অতি গুরুত্বপূর্ণ হলেও রাস্তাটি প্রস্থ না হওয়ায় প্রায়শই গাড়ি পারাপারের সময় স্কুল কলেজ শিক্ষার্থীরা এই রাস্তায় দুর্ঘটনায় হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। এ ব্যপারে নজরুল ইসলাম রাতারগুল বার্তাকে বলেন,স্কুল কলেজ মহিলা মাদ্রাসার প্রায় একহাজার শিক্ষার্থী আর সকল শিক্ষার্থী এই রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করে আর রাস্তা প্রশস্ত না হওয়ার ফলে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন সময় বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়।বিশেষ করে পর্যটকদের গাড়ি যাতায়াতের সময় স্কুল কলেজ পড়োয়া শিক্ষার্থীদের প্রায়শই বিব্রতকর অবস্থায় পড়তে হয়। এ ব্যপারে একজন স্কুল শিক্ষার্থী বলেন, চৌমূহনী বাজার থেকে রাতারগুল পর্যন্ত রাস্তাটি প্রসস্থ না হওয়ার কারণে আমাদের চলাচলের অনেক সমস্যা হয়।আর আমাদের স্কুল কলেজ শিক্ষার্থীদের ইউনিফর্ম (পোশাক) সাদা হওয়ায় চলতি বর্ষা মৌসুমে অনেক শিক্ষার্থীকে কলেজে এসেও ফিরতে হয়েছে বাড়িতে।কারন সাদা পোশাক পরে কলেজে যাওয়ার সময় বিভিন্ন যানবাহনের চাকার ময়লাও কাদা যুক্ত পানি ছিক্টে আসে আমাদের উপরে আর এই পোশাক পরার অনুপোযোগি হয়ে যায়। ফলে শিক্ষার্থীদের স্কুল কলেজে মাদ্রাসায় না গিয়ে ফিরতে হয় বাড়িতে।তাই চৌমূহনী বাজার থেকে রাতারগুল পর্যন্ত রাস্তাটি প্রসস্থ হলে স্কুল কলেজ শিক্ষার্থীসহ যাতায়াত করতে পারবে সহজে। এবিষয়ে ৬নং ফতেপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আমিনুর রহমান চৌধুরী সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, চৌমূহনী বাজার থেকে রাতারগুল সোয়াম ফরেস্ট পর্যন্ত এই রাস্তাটি ইতিমধ্যে প্রসস্থ করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।রাস্তাটি প্রসস্থ হলে স্কুল কলেজ শিক্ষার্থীসহ যাতায়াত করতে পারবে সহজে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*