দৈনিক আলোচিত জামালপুর পত্রিকার প্রতিনিধি মাসুদুর রহমানকে গুলি করে হত্যার হুমকি,থানায় জিডি

দৈনিক আলোচিত জামালপুর পত্রিকার প্রতিনিধি মাসুদুর রহমানকে গুলি করে হত্যার হুমকি,থানায় জিডি
মাসুদুর রহমান- দৈনিক আলোচিত জামালপুর পত্রিকার প্রতিনিধি মাসুদুর রহমানকে  গুলি করে হত্যার হুমকি দিয়েছে সরিষাবাড়ী পৌর মেয়র রুকনুজ্জামান রুকন । গত রবিবার সরিষাবাড়ী পৌরসভা কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে । মাসুদুর রহমান বাদী হয়ে ৪ জনের বিরুদ্ধে সরিষাবাড়ী থানায় সাধারন ডায়েরী করেন।
জানা যায় ,মেয়র রুকনের বিভিন্ন অনিয়ম,অর্থ আত্মসাৎ ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে সঠিক সংবাদ প্রকাশ করে আসছে মাসুদ। সরিষাবাড়ী পৌরসভায় গত ২০ মে রবিবার
সকাল ১০ টায় মেয়র ও কাউন্সীলরদের মধ্যে ঝগড়া বিবাদ হওয়ার সংবাদ পেয়ে দৈনিক আলোচিত জামালপুর পত্রিকার প্রতিনিধি মাসুদুর রহমান পেশাগত দায়িত্ব
পালনে তথ্য সংগ্রহ ও নিতে যায় । তিনি গিয়ে দেখতে পায় মেয়র তার ব্যবহৃত শর্টগানটি পৌর কাউন্সীলরদের দিকে তাক করে রেখেছে । এ দৃশ্যের ছবি নিতে গেলে তার পালিত নেশাগ্রস্থ ক্যাডার সাতপোয়া গ্রামের রাকিব,হৃদয় , দেহ রক্ষী শিহাব মাসুদকে খুন  জখমের ভয়ভীতি ও অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ  করে। এ সময় মেয়র রুকন তার ব্যবহৃত শর্ট গান গিয়ে মাসুদকে হত্যার উদ্দেশ্যে গুলি করিতে উদ্যোত হয়।  তাঁকে গুলি করে হত্যার হুমকি প্রদানের প্রেক্ষিতে মেয়র রুকন ও তার সহযোগীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী করেছে সরিষাবাড়ী কর্মরত জাতীয়/স্থানীয পত্রিকার প্রতিনিধিরা।  এ ঘটনার তীব্র নিন্দা প্রকাশ করে মাসুদুর রহমান  ও তাঁর পরিবারের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতি আহ্বান জানান দৈনিক আলোচিত জামালপুর পরিবার। সেই সাথে সরিষাবাড়ী উপজেলাসহ সারাদেশে কর্মরত সকল সংবাদকর্মীদের সার্বক্ষনিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করনের জন্য রাষ্ট্রের আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি আহ্বান জানান।এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় সাধারন ডায়েরী রেকর্ড করেনি
থানা পুলিশ।
উল্লেখ্য, ইতিপুর্বেও মেয়রের পালিত ক্যাডাররা মাসুদকে হত্যার হুমকি প্রদর্শন সহ ফেইসবুকে তার বিরুদ্ধে কুটুক্তি করেছিল। এ ঘটনার কোন ব্যবস্থা নিতে পারেনি থানা পুলিশ।
জানতে সরিষাবাড়ী থানার ওসি (তদন্ত) মুহাব্বত কবির জানান,আবেদন পেয়েছি তদন্ত পুর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ বিষয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল খান মুঠোফোনে বলেন , আমি এসপির অনুমতি ছাড়া থানায় জিডি রেকর্ড করতে পারবো না । জিডি দিয়ে যান এসপির সাথে কথা বলে আপনাকে জানাব।
এ বিষয়ে জামালপুর পুলিশ সুপার দেলোয়ার হোসেনের মুঠোফোনে বারবার যোগাযোগের চেষ্টা করিলে তিনি ফোন রিসিভ করেনি।  জানতে চাইলে ময়মনসিংস বিভাগ পুলিশের ডিআইজি নিবাশ চন্দ্র মাঝি মুঠোফোনে বলেন, থানায় জিডি করেন। বিষয়টি আমি এসপিকে বলতেছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*