নরসিংদীর মেঘনা নদীতে নৌকায় বজ্রপাতে নারীসহ নিহত ৩, আহত ১০

নরসিংদীর মেঘনা নদীতে নৌকায় বজ্রপাতে নারীসহ নিহত ৩, আহত ১০কে.এইচ.নজরুল ইসলাম,নরসিংদী প্রতিদিনঃ নরসিংদীর মেঘনা নদীতে যাত্রীবাহী একটি নৌকায় বজ্রপাতে ২ নারীসহ ৩ জন নিহত হয়েছেন।আহত হয়েছেন আরো অনন্তত ১০ যাত্রী।মঙ্গলবার(১২ জুন)বিকেল ৩ টায় নরসিংদীর সদর উপজেলার চরাঞ্চ্যচল করিমপুরের মেঘনা নদীর মোহনায় এই বজ্রপাতের ঘটনাটি ঘটে।অন্যান নৌকার যাত্রীরা গুরুতর আহতদের উদ্ধার করে নরসিংদী সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করপন।এদের মধ্যে দুজনকে মুমূর্ষু অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পাঠানো হয়েছে।নিহতরা হলেন- সদর উপজেলার আলোকবালী গ্রামের ফরিদা ইয়াসমিন (৫০), একই গ্রামের রেহেনা বেগম (৪০) ও সেলিম মিয়া।আহতদের মধ্যে রয়েছেন- ছানাউল্লা মিয়া, রুবেল মিয়া, আলী হোসেন, ফরহাদ মিয়া, জাবেদ ও ভুট্টু মিয়া।পুলিশ ও এলাকাবাসী সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, দুপুর আড়াইটার দিকে নরসিংদীর বিপিন সাহার ঘাট থেকে শতাধিক যাত্রী নিয়ে ইঞ্জিন চালিত নৌকা (ট্রলার) সদর উপজেলার চরাঞ্চ্যচল আলোকবালী যাচ্ছিল।নৌকাটি চরাঞ্চ্যচলের করিমপুরের কাছাকাছি পৌঁছলে মুষলধারে বৃষ্টির সাথে সাথে বজ্রপাত শুরু হয়।এরই মধ্যে নৌকাটি মেঘনা নদীর করিমপুর মোহনায় পৌঁছলে বজ্রপাতের শিকার হয়।এসময় নৌকার ছাদে বসা সেলিম নামে একজন দগ্ধ হয়ে মারা যান। আহত হন আরও ১২ জন। পরে নৌকার অন্য যাত্রীরা তাদের উদ্ধার করে নরসিংদী সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। হাসপাতালে আনার পর আরও দুইজনের মৃত্যু হয়।ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী মনু মিয়া বলেন, প্রচণ্ড বৃষ্টি হচ্ছিল। বিকট শব্দে বজ্রপাত শুরু হয় এরই মধ্যে যেন আগুনের একটি গোলা পড়ল। এসময় ছাদে থাকা একজন সঙ্গে সঙ্গে পুড়ে যান। অন্যরা দগ্ধ হয়।অপর প্রত্যক্ষদর্শী হাসিব নরসিংদী সাংবাদিকদেরকে বলেন, বজ্রপাতের সাথে সাথে নৌকার ছাদে আগুন লেগে যায়। এসময় হুড়োহুড়ি করে নৌকার বেশ কিছু যাত্রী পানিতে ঝাঁপ দেন।পরে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়।নরসিংদী সদর হাসপাতালের আবাসিক কর্মকর্তা (আরএমও) শামীম আহমেদ হতাহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*