বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম না হলে এদেশ স্বাধীন হতো না

মনোহরগঞ্জে শোক দিবসের অনুষ্ঠানে মোঃ তাজুল ইসলাম এমপি

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম না হলে এদেশ স্বাধীন হতো না

কুদরত উল্যাহ ,কুমিল্লা প্রতিনিধি:- বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি মোঃ তাজুল ইসলাম এমপি বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম না হলে এদেশ স্বাধীন হতো না। যারা স্বাধীনতাকে মেনে নিতে পারেনি তারাই বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছে। মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষের শক্তি ক্ষমতায় এসে দেশের স্বাধীনতাকে নস্যাৎ করার জন্য অর্থনৈতিকভাবে দেশকে পিছিয়ে দেয়। সেই অপশক্তি দেশকে ধ্বংস করার জন্য এখনও বিভিন্ন ষড়যন্ত্র করছে। বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করার জন্য তারা ১৯ বার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এখন অনেক দূর এগিয়েছে। বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারকে হত্যার সময় শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা দেশের বাহিরে ছিলেন বলে বেঁচে গেছেন। নয়তো দেশে নেতৃত্ব দেয়ার মতো কেউ ছিল না। আজ ১৫ই আগষ্ট বুধবার স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩ তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে মনোহরগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আয়োজিত র‌্যালী, আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় তিনি আরো বলেন, শেখ হাসিনা ২০২১ সালের মধ্যে এদেশকে মধ্যম আয়ের দেশ হিসেবে গড়ে তোলার ঘোষণা দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর এই ঘোষণা বাস্তবায়নে এগিয়ে আসতে হবে, দেশে প্রেমে স্বাক্ষর রাখতে হবে। এই দেশ প্রেমের মধ্যদিয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলেতে হবে। তার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে হবে। উপজেলা পরিষদ চত্বরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা প্রকৌশলী মোহাম্মদ আল আমিন সরদার। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা জেলা পরিষদের সদস্য ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মাষ্টার আবদুল কাইয়ুম চৌধুরী, কুমিল্লা জেলা পরিষদ সদস্য এড. তানজিনা আক্তার, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফরোজা কুসুম, উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী ফেরদৌস আলম মজুমদার, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার সৈয়দ মোঃ তৈয়ব হোসেন, যুব উন্নয়ন অফিসার মুহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন, মনোহরগঞ্জ থানার ওসি মোঃ আনোয়ার হোসেন, সহ অারো অনেক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*