শার্শা পাইলট মডেল স্কুল জাতীয়করণ হওয়ায় এমপি আফিলকে সংবর্ধনা

শার্শা পাইলট মডেল স্কুল জাতীয়করণ হওয়ায় এমপি আফিলকে সংবর্ধনা

মোঃ আয়ুব হোসেন পক্ষী, বেনাপোল প্রতিনিধি: যশোরের শার্শা পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় কে জাতীয়করণ করায় গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কৃতজ্ঞাপন ও যশোর ৮৫/১, আসনের সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দিনকে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে জাকজমকপূর্ণ ও ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে সংবর্বনা অনুষ্ঠান শনিবার সকালে শার্শা পাইলট মডেল হাইস্কুল মাঠে অহিদুজ্জমান পুটুর সঞ্চালনায় ও শার্শা উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান মেহেদি হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথী হিসাবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় এমপি শেখ আফিল উদ্দিন। তিনি উপস্থিত অভিভাবক, শিক্ষার্থী ,সুধীগন ,সাংবাদিক ও আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, আমি গভীর ভাবে শ্রদ্ধা করি জাতির জনকসহ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রয়াত শিক্ষকদের, একজন এমপি যদি সৎ থাকে তবে সে আল্লাহর দরবার থেকে পুরস্কার পেয়ে যায়, যেটা আমি পেয়েছি এই স্কুল জাতীয়করনের মাধ্যমে৷ স্কুলে ভালো পড়াশুনার মাধ্যমে ভালো রেজাল্টের মাধ্যমে আমি বিভিন্ন ভাবে শিক্ষার্থীদের কে উৎসাহ দিয়েছি,যার ফলে তারা এখন দেশের বড় বড় স্থানে চাকুরী ও ব্যবসা করছে ৷ আমি শার্শা উপজেলায় সবচেয়ে শিক্ষাক্ষেত্রে বেশী অর্থ ব্যয় করেছি,পড়ালেখার জন্য আমার ফ্যাক্টরীতে তৈরী খাতা বিনামুল্যে বিতরন করেছি,এই সরকারের আমলে বাংলাদেশ সহ শার্শা উপজেলায় বিদ্যুতের আমূল পরিবর্তন হয়েছে৷ উপজেলায় কলেজ, স্কুল, মাদ্রাসা ,সরকারী বিভিন্ন স্থাপনায় এই সরকার ও এমপি হয়ে আমার অবদান রয়েছে। তিনি সবাইকে উদ্দেশ্য করে আরও বলেন বিএনপি-জামায়াত দেশে ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে স্বপ্ন দেখে, আমি এই উপজেলায় যে সকল স্কুল ,কলেজ, মাদ্রাসায় অভিভাবক রয়েছি সে সকল বিদ্যালয়ে লক্ষ লক্ষ টাকার তহবিল জমা রয়েছে , যেটা বিএনপি-জামায়াতের সময় তহবিল ছিল শুন্য ৷ অভিভাবকদের বলেন তারাই পারে সন্তানদের সু-শিক্ষায় শিক্ষিত করতে, বাবা-মায়েরা অনেক কস্ট করে সন্তানের সুমানুষ করে গড়ে তোলে যেন সন্তান জীবনে প্রতিষ্ঠিত হয়। আগামী নিবার্চনে তিনি উপস্থিতি সবাইকে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আবারও শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় আনার অনুরোধ জানান। বিশেষ অতিথী হিসাবে উপস্থিত ছিলেন যশোর জেলা প্রশাসক আব্দুল আওয়াল,পুলিশ সুপার মঈনুল হক বিপিএম, পিপিএম, শার্শা উপেজেলার ভারপ্রাপ্ত ইউএনও জাহিদুল ইসলাম, শার্শা উপজেলার চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম মঞ্জু, ভাইস চেয়ারম্যান মেহেদি হাসান,উপজেলা আওয়ামীলীগের সেক্রেটারী নুরুজ্জামান, যশোর জেলা পরিষদ সদস্য ইব্রাহিম খলিল, শার্শা থানার ইনর্চাজ মসিউর রহমান, বেনাপোল পোর্ট থানার ইনচার্জ আবু সালেহ মাসুদ করিম, শিক্ষা অফিসার হাফিজুর রহমান, শার্শা ইউপি চেয়ারম্যান সোহারাব হোসেন, সার্বিক তত্ত্বাবধনায় ছিলেন আব্দুল মুজিদ, এর পূর্বে শেখ আফিল উদ্দিন এমপি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সহিদুল ইসলাম সহ অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দের হাতে বিদ্যালয়ের দলিল হস্তান্তর করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*