শৈলকুপায় ৭৫ বছর বয়সী বৃদ্ধ ভ্যান চালকের পাশে ইউএনও উসমান গণি

শৈলকুপায় ৭৫ বছর বয়সী বৃদ্ধ ভ্যান চালকের পাশে ইউএনও উসমান গণি

টিপু সুলতান, শৈলকুপা: ঝিনাইদহের শৈলকুপায় ৭৫ বছর বয়সী বৃদ্ধ ভ্যান চালকের পাশে সাহায্যার্থের হাত বাড়িয়ে পাশে এসে দাড়ালেন শৈলকুপা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) উসমান গণি।

এ ব্যাপারে ইউএনও উসমান গণি বলেন, রবিবার(১৫ জুলাই) সকালে জেলায় মিটিং এ যাওয়ার সময় গাড়াগঞ্জ বাস স্ট্যান্ডে বয়সের ভাড়ে কুঁজো হয়ে যাওয়া একজন অতিবৃদ্ধের ধীরে ধীরে যাত্রিসহ পা দিয়ে ভ্যান চালিয়ে যাওয়ার দৃশ্য চোখে পড়ে।  এমতাবস্থায় তার সহকারীকে দিয়ে তিনি ঐ ব্যক্তির ঠিকানা যোগাড় করেন এবং উপজেলা পরিষদ ইউএনও কার্যালয়ে দেখা করার বিষয়ে অবহিত করেন। নির্ধারিত সময় অনুসারে সোমবার সকালে ভ্যান চালিয়ে বয়সের ভাড়ে নুয়ে যাওয়া বৃদ্ধ লোকটি ইউএনও অফিসে আসেন। বৃদ্ধ ভ্যান চালকের সাথে আলাপকালে তার পরিবারের বিস্তারিত তথ্য জানতে পারেন।

৭৫ বয়সী বৃদ্ধ ভ্যান চালক উপজেলার দুধসর ইউনিয়নের চন্ডিপুর গ্রামের আদিল উদ্দীন। বৃদ্ধ ভ্যান চালকের সংসারে বৃদ্ধ স্ত্রী ও দুই ছেলে, তিন মেয়ে। এক ছেলে প্রতিবন্ধী। অন্য ছেলে ঢাকায় থেকে পড়াশুনা করে, কিন্তু বাবার খোঁজ রাখে না। তিন মেয়ে বিবাহিত যার মধ্যে এক মেয়ে বিধবা হয়ে বাবার কাছেই থাকে। সংসারে একমাত্র কর্মক্ষম ব্যক্তিও তিনি নিজে। বয়সের কারণে সোজা হয়ে হাটতে পারে না। কিন্তু জীবন জীবিকা নির্বাহ করার তাগিদে প্রতিদিন ভ্যান নিয়ে বাইরে যেতে হয়। দ্রুত ভ্যান চালাতে পারে না বলে তার ভ্যানে কেউ উঠতে চাইনা বলে তিনি জানান। দিনে ৪০/৫০ টাকা আয় হয়। তাই দিয়ে কোনরকম সংসার চলে। এমনও দিন আসে না খেয়েও থাকতে হয়। যার কারণে ভিক্ষাবৃত্তির নোংরা কাজ না করে আত্মমর্যাদা নিয়ে বেঁচে থাকার জন্যই তিনি ভ্যান চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করেন।

বৃদ্ধ ভ্যান চালক আদিল উদ্দীণের করুণ কাহিনী শোনার পর ইউএনও উসমান গণি আগামী ২ মাস সংসার চালানোর মত নগদ অর্থ তাকে সাহায্য প্রদান করেন। এবং তার প্রতিবন্ধী ছেলেকে একটি প্রতিবন্ধী কার্ড করে দেওয়াসহ বৃদ্ধ লোকটিকে স্থায়ীভাবে আয় উপার্জন করতে পারে  তার ব্যবস্থা গ্রহণ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*