১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট রাতে সংঘটিত হয়েছিল ইতিহাসের এক কলঙ্কিত অধ্যায়

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট রাতে সংঘটিত হয়েছিল ইতিহাসের এক কলঙ্কিত অধ্যায়– রাউজান চিকদাইরে শোক দিবসের অনুষ্ঠানে ফজলে করিম চৌধুরী এমপি

শাহাদাত হোসেন , রাউজান প্রতিনিধি ;; স্বাধীনতার মহান স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে রাউজান উপজেলার চিকদাইর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ , যুবলীগ, ছাত্রলীগ এবং অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেন। সকাল ৮টায় পবিত্র খতমে কোরআন,মিলাদ দোয়ার মধ্যদিয়ে কর্মসুচী শুরু হয়। বুধবার ১৫ আগস্ট সকালে চিকদাইর ইউনিয়ন পরিষদের মাঠে আয়োজিত আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও অঙ্গ সংগঠন কতৃক অনুষ্টিত কর্মসুচীতে অংশগ্রহণ করেন , চিকদাইর উচ্চ বিদ্যালয়, মুন্সি পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চিকদাইর শাহাদাত ফজল যুব উচ্চ বিদ্যালয়, আজিজয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, হযরত নেওয়াজ গাজী সুন্নিয়া মাদ্রাসা, দক্ষিণ সর্তা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক কর্মচারী, ছাত্র – ছাত্রী সহ এলাকার সর্বস্তরের জনসাধারণ। পরে আলোচনা সভা চিকদাইর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও ইউপি সদস্য হাসান আলী মেম্বারের সভাপতিত্বে অনুষ্টিত হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন রেলপথ মন্ত্রনালয় সর্ম্পকিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি। তিনি বলেন – আজ বাঙালি জাতির শোকের দিন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদতবার্ষিকী। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট রাতে সংঘটিত হয়েছিল ইতিহাসের এক কলঙ্কিত অধ্যায়। ৪৩ বছর আগে এই দিনে স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করেছিল ক্ষমতালোভী নরপিশাচ কুচক্রী মহল। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যাকারীদের উদ্দেশ্য ছিল দেশের অগ্রযাত্রাকে পিছিয়ে দেওয়া। তবে তারা এ দেশের ইতিহাস পাতা থেকে বঙ্গবন্ধুর নাম মুছে ফেলতে চেয়া ছিল । কিন্তু তারা বুঝতে পারেনি যে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা যায় না। জীবিত বঙ্গবন্ধুর চেয়ে মৃত বঙ্গবন্ধু অনেক বেশি শক্তিশালী । তিনি আরো বলেন- এই দেশের নতুন প্রজন্মের কাজে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ ছড়ী দিতে হবে। এতে প্রধান বক্তা ছিলেন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান প্রিয়তোষ চৌধুরী। ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক সেলিম উদ্দিনের পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা মোজজাফর তালুকদার, চিকদাইর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাকের হোসেন মাষ্টার, চিকদাইর উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি আব্দুর রহিম আলমগীর, মুন্সী পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি আলমগীর কবির চৌধুরী, শেমল পালিত । আরো বক্তব্য রাখেন ইউপি সদস্য হানিফ মেম্বার, ইলিয়াছ, প্রদীপ দাশ, হোসেন মেম্বার, মোদ্দাচ্ছের হায়দার, আনোয়ার মেম্বার, সেনোয়ারা বেগম, পারভিন আক্তার, সাকি আক্তার, উপজেলা যুবলীগের সহ সম্পাদক জাহেদুল আলম জাহেদ, ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি শাহজাহান, সহ সভাপতি কামরুল হাসান বারেক, সাধারণ সম্পাদক নেজাম উদ্দিন, জসিম উদ্দিন, রাশেদুল আলম রনি, মহরম আলী, আবছার, উপজেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি হেলাল উদ্দিন আরিফ, কাজী মাসুদ রানা, রফিকুল ইসলাম তুষার প্রমূখ। এছাড়াও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ, মহিলা আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভায় শেষে দুঃস্থ পরিবার সদস্যদের মাঝে চাউল বিতরণ করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*