ফটিকছড়িতে মাদক মামলায় যুবককে গ্রেফতারের প্রতিবাদে মানববন্ধন

ফটিকছড়িতে মাদক মামলায় যুবককে গ্রেফতারের প্রতিবাদে মানববন্ধন
ফটিকছড়ি প্রতিনিধি: ফটিকছড়িতে মাদক মামলায়  সাইফুল ইসলাম বাবর (২৪) নামের শ্রমজিবী যুবককে গ্রেফতারের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে সচেতন গ্রামবাসী, ছাত্র ও যুব সমাজ। শনিবার সকালে উপজেলার বখতপুর ফারুক এ আযম ইসলামীয়া দাখিল মাদ্রাসা- ঝর্ণার দীঘির পাড় করলিয়া পুকুর পাড়ে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি জাবেদুল আযম মাসুদ। আতিক নজরুলের  সঞ্চালনায়, মানববন্ধনে অন্যান্যদের মধ্য বক্তব্য রাখেন, নানুপুর লায়লা-কবির কলেজ ছাত্রলীগের প্রতিষ্টাতা সভাপতি মীর মোরশেদ, বখতপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভাপতি ইলিয়াছ বাবুল, বখতপুর দায়রাবাড়ী বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের সহ প্রধান শিক্ষক মাষ্টার সোলয়মান, বখতপুর বালিকা নিম্ন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলমগীর কবির, বখতপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাবর মিয়া, প্রবাসী আবুল মুনসুর, নুরুল আমিন বাবু, আল আজিম ইসলামী পাঠাগারের সভাপতি মাওলানা ওমর ফারুক, নুরুদ্দিন বাবু, বখতপুর ইউপি সদস্য রাহেনা বেগম, সাইফু উদ্দিন মেম্বার, ইয়াছিন, আব্দুর শুক্কুর, জাহেদুল আলম, হায়দার, হান্নান, ফরহাদ, রাসেল সহ হাজারো এলাকার সচেতন এলাকাবাসী উপস্থিত ছিলেন। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা ঘোষণা দিয়েছেন চল যাই যুদ্ধে মাদকের বিরুদ্ধে! তবে আজ অত্যন্ত দুঃখের সাথে বলতে হচ্ছে যে ছেলে জিবনে সিগারেট পর্যন্ত ফুকেনি সেই ছেলেকে মাদক ব্যবসায়ী সাজিয়ে গ্রেফতার করেছে। সাইফুল ইসলাম বাবর অত্যন্ত দরিদ্র পরিবারের সন্তান তাই লেখাপড়াকে তুচ্ছ করে কর্মজীবনে জড়িয়ে পড়েন। সে পরিবারের একমাত্র উপার্জনশীল ব্যাক্তি। তার পরিবার যেন নুন আনতে পান্তা ফুরাই অবস্থা। সে কিনা মাদক ব্যবসায়ী? সত্যিই অবাক করা কান্ড। প্রশাসনের কাছে জোরদাবী জানাচ্ছি এই নিরপরাধ ছেলেকে অচিরেই মুক্তি দিয়ে সত্যিকারের মাদক ব্যাবসায়ীদের গ্রেফতার করুন। সারাদেশ মাদকের বিরুদ্ধে। বর্তমান মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স প্রশংসার দাবিদার।মাদক নির্মূল করতে গিয়ে সাধারণ জনকে হয়রানি করবেন না! এভাবর নিরপরাধ ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে জননেত্রীর সুনাম ক্ষুন্ন করবেন না! সাইফুল ইসলাম বাবরের পিতা অস্রুশিক্ত কন্ঠে আব্দুল হালিম বলেন, আমার নিরপরাধ ছেলে কখনো মাদক ব্যাবসায়ী হতে পারে না। বাবর সকাল ৮টায় কর্মস্থল লাইফ কেয়ারে যেত আর রাত ৯টার মধ্যে বাসায় ফিরে আসত। সে কখনো সিগারেট পর্যন্ত মুখে নেয়নি আজ তাকে সাজানো হয়েছে মাদক ব্যাবসায়ী। আপনারা জানেন বাবর কেমন? প্রশাসনের কাছে জোর দাবী জানাচ্ছি বাবরকে নিঃশর্তে মুক্তি দিন। উল্লেখ্য, সাইফুল ইসলাম বাবর (২৪) কে গত বৃহস্পতিবার সন্ধায় নানুপুর লাইফ কেয়ার ডায়াগনস্টিক সেন্টার থেকে কথিত মাদক মামলায় গ্রেফতার করে পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*