‘পুঁথিগত শিক্ষার পাশাপাশি নৈতিক শিক্ষায়ও শিক্ষিত হতে হবে’

ধ্রুব সাংস্কৃতিক পরিষদ বাংলাদেশ এর সাংস্কৃতিক বিষয়ক পরীক্ষায় বক্তারা-
‘পুঁথিগত শিক্ষার পাশাপাশি নৈতিক শিক্ষায়ও শিক্ষিত হতে হবে’

কুতুব উদ্দিন রাজু,চট্টগ্রাম:প্ুঁথিগত বিদ্যা পরহস্তে ধন ,নহে বিদ্যা নহে ধন হলে প্রয়োজন।তোমাদের পুঁথিগত শিক্ষার পাশাপাশি নৈতিক শিক্ষায়ও শিক্ষিত হতে হবে।আগামী দিনের ভবিষ্যৎ রচনা করবে তোমরাই।তোমাদের কাছ থেকে দেশ অনেক কিছু আশা করে।আমাদের সবাইকে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হতে হবে।দেশের উন্নতি মানেই তোমার তথা পরিবার সমাজ ও পুরো গোষ্ঠীর উন্নতি।সময়কে গুরুত্ব দিতে হবে।কারণ সময় কারো জন্য অপেক্ষা করে না।তাই তোমাদের এই সময়কে সঠিকভাবে কাজে লাগাতে হবে।আজ ১৮ জানুয়ারী সকাল ১০টায় সেন্ট্রাল পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজে ধ্রুব সাংস্কৃতিক পরিষদ আয়োজিত বিভিন্ন বিভাগের উপর সাংস্কৃতিক বিষয়ক পরীক্ষা অনুষ্ঠানে বক্তারা এসব কথা বলেন।পুরো বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে একই দিনে এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে।চট্টগ্রাম মহানগর অঞ্চলের সপ্তবর্ণা,আর্টজোন,সুরসাধনা,সপ্তস্বর,মাধুরী রুদ্রবীণা,প্রমাধুরী,চিত্তরঞ্জন,পায়েল,জয়স্তুতি ও ফুলবাণীসহ ১১টি প্রতিষ্ঠানগুলোর লিখিত পরীক্ষা অনুষ্টিত হয়েছে।পরীক্ষায় অতিথি পর্যবেক্ষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পল্লীকবি জসিম উদ্দিন স্কলারশীপ বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ রতন দাশগুপ্ত।আরো উপস্থিত ছিলেন ধ্রুব সাংস্কৃতিক পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও চেয়ারম্যান এড.অরুণ কুমার দত্ত,ভাইস-চেয়ারম্যান অঞ্জন দাশ।সমন্বয় বোর্ডের প্রধান শিল্পী রঞ্জন দাশগুপ্ত ও সহকারী সমন্বয়ক কাবুল দত্ত উক্ত পরীক্ষায় দায়িত্ব পালন করেন।তাছাড়া দক্ষিণ চট্টগ্রামেও দীপলাল চক্রবতীর্’র নেতৃত্বে ১৪টি প্রতিষ্ঠান,উত্তর চট্টগ্রামে ওস্তাদ সুভাষ নাথ‘র নেতৃত্বে ৫টি প্রতিষ্ঠান এবং ঢাকা অঞ্চলে জয়া দাশের নেতৃত্বে একই দিনে একযোগে উক্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে।ভবানী বসাক,রতœা সিনহ্,াসবুজ দে,দেবাশীষ চক্রবর্তী,নিপা চৌধুরী,চিত্তরঞ্জন বর্মন,সুইটি দাশ,সুমন সাহা,মান্না দাশ,অরুপ নাথ,চুমকী সরকার,পিংকি সরকার,মৌপ্রিয়া দত্ত,তারকনাথ বসাক,শ্রীধাম দাশ,দ্বীপ দে,অনুপম দাশ,সঞ্জয় দাশ,রাজীব বড়–য়া, সমীর শীল,মহুয়া ঘোষ,পুলক রায় বিভিন্ন অঞ্চলের হল পরিদর্শকের দায়িত্ব পালন করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*