নরসিংদীতে শিশু শিহ্মার্থী ধর্ষণের শিকার

নরসিংদীতে শিশু শিহ্মার্থী ধর্ষণের শিকার

কে.এইচ.নজরুল ইসলাম,নরসিংদীঃ নরসিংদীতে দ্বিতীয় শ্রেণির শিশু শিহ্মার্থী(৭)কে ধর্ষণের এক চাঞ্চল্যকর সংবাদ পাওয়া গেছে।সোমবার (২১ জানুয়ারি)দুপুরে সদর উপজেলার হাজীপুর বৌবাজার এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।নির্যাতনের শিকার ওই শিশু শিহ্মার্থীকে নরসিংদী সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে।এ ঘটনায় শিশু শিহ্মার্থীর বাবা বাদী হয়ে নরসিংদী সদর মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন।ধর্ষণের শিকার শিশু শিহ্মার্থীর পরিবারের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে,শিশু শিহ্মার্থীর বাবা নরসিংদী শহরের একটি বাজারে মাছ বিক্রি করেন।সোমবার দুপুরে শিশুটি বিদ্যালয় থেকে ফিরে এসে বাড়ির উঠানে খেলা করছিল।এসময় প্রতিবেশি লম্পট উত্তম দাস শিশু শিহ্মর্থীর মুখ চেপে ধরে নিজ ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করে।পরে শিশুটি অসুস্থ অবস্থায় বাড়ি ফিরে তার মাকে ঘটনাটি জানায়।শিশু শিহ্মার্থীর মা অসুস্থ অবস্থায় নরসিংদী সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে।পাশাপাশি শিশুর বাবা বাদী হয়ে লম্পট উত্তম দাসকে আসামি করে নরসিংদী সদর মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।অভিযুক্ত লম্পট উত্তম দাস হাজীপুর বৌবাজার মালিপাড়া এলাকার রতন দাসের ছেলে।এ ঘটনায় নরসিংদী সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক রোজী সরকার সাংবাদিকের বলেন, ‘ওই শিশুকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।পরিক্ষা-নিরীক্ষার পর ধর্ষণের বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যাবে।শিশুর মা বলেন,এ ঘটনার পর থেকে অভিযুক্তের পরিবারের লোকজন আপোষ মীমাংসার প্রস্তাব দিয়ে মামলা না করার জন্য চাপ দিচ্ছে।কিন্তু আমরা এ ঘটনার বিচার চাই।নরসিংদী সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. সৈয়দুজ্জামান বলেন,ধর্ষণের ঘটনায় শিশুর বাবা বাদী হয়ে অভিযুক্ত উত্তম দাসকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন।এ ঘটনায় অভিযুক্তকে গ্রেফতারে অভিযান চালানো হয়েছে।অভিযুক্ত উত্তম দাস একটি তেলের কারখানায় কাজ করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*