বেনাপোল চেকপোস্ট কাস্টমসের বিরুদ্ধে উৎকোচ আদায়ের অভিযোগ

বেনাপোল চেকপোস্ট কাস্টমসের বিরুদ্ধে উৎকোচ আদায়ের অভিযোগ

মোঃ আয়ুব হোসেন পক্ষী, বেনাপোল সীমান্ত প্রতিনিধিঃ বেনাপোল চেকপোষ্ট কাস্টমস কর্তৃক পাসপোর্টযাত্রী হয়রানি ও উৎকোচ আদায়ের অভিযোগ করেছে ভারতীয় পাসপোর্টযাত্রী রুপালী দে ও রাখালচন্দ্র হালদার। মঙ্গলবার ভারতীয় এ পাসপোর্টযাত্রীরা অভিযোগ করে বলেন কাস্টমস (এ আর ও) বিজন কুমার ওরফে টাক বিজন ও রহিমা আক্তার ওরফে পাকরা রহিমা তাদের নিকট থেকে পৃথক ভাবে ২০০০ হাজার ও ৩০০০ হাজার টাকা চায়। টাকা না দিতে পারায় তাদের সকল পন্য তারা রেখে দেয়। পাসপোর্টযাত্রী রুপালী দে ( পাসপোর্ট নাং এস ০০০৩৪৪৯) বলেন সে বাংলাদেশে দ্বিতীয়বার তার আতœীয় বাড়ি খুলনা বেড়াতে আসার সময় তার ব্যাগে তার ব্যবহৃত ৮টি শাড়ি নিয়ে আসছিল । কারন আত্মীয় বাড়ি কয়েকদিন সে থাকবে তার জন্য বাড়ি থেকে তার গাঁয়ের একসেট সহ আরো ৮টি কাপড় নিয়ে আসে। এরজন্য এ আর ও রহিমা খাতুন তার নিকট ৩০০ হাজার টাকা দাবি করে। তখন রুপালী বলে আমি কেন আপনাকে তিন হাজার টাকা দিব আমি তো অবৈধ কোন পন্য আনি নাই। আমি আমার ব্যবহৃত পন্য এনেছি। তখন রহিমা ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে বেয়াদব মহিলা বলে কাপড়গুলি রেখে একটি স্লিপ রেখে দেয়। অপরদিকে রাখাল চন্দ্র হালদার বলেন ( পাসপোর্ট নং- জেড ৪৮৮০৬১৫) আমি ভারতীয় রুপির মাত্র ৭ হাজার টাকার বিভিন্ন পন্য নিয়ে বাংলাদেশে আমার আত্মীয় বাড়ি বেড়াতে যাওয়ার জন্য আসি। তখন এ আর ও বিজন কুমার আমার নিকট থেকে ২০০০ হাজার টাকা দাবি করে। এ দাবিতে আমি রাজি না হলে তিনি আমার পন্য কেড়ে রেখে দেয়, এবং একটি স্লিপ হাতে ধরিয়ে দেয়। এ ব্যাপারে বেনাপোল চেকপোস্ট কাস্টমস সুপার সমীর এর সাথে কথা হলে তিনি বলেন ভারতীয় নাগরিক কোন পন্য নিয়ে আসতে পারবে না। তারা কেন পন্য নিয়ে আসবে। প্রতিদিন হাজার হাজার ল্যাগেজ বের হয় এ আর ও দের টাকা দিয়ে তখন কেন বাধা দেন না, এ প্রশ্নের জবাবে বলেন এটা হওয়ার কথা না যদি এ রকম হয় আমি বিষয়টি দেখব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*