দাঁড়িয়ে পানি পান করার ক্ষতিকর প্রভাব ও পান করার সঠিক পদ্ধতি

দাঁড়িয়ে পানি পান করার ক্ষতিকর প্রভাব ও পান করার সঠিক পদ্ধতি
উজ্জ্বল শিকদার, স্টাফ রিপোর্টারঃ পানির অপর নাম জীবন। বেঁচে থাকার ক্ষেত্রে এটি একটি অপরিহার্য উপাদান। পানি পান করলে শুধু তৃষ্ণাই মেটে না, সেই সঙ্গে শরীরে পানির মাত্রা বা ভারসাম্যও বজায় থাকে। তবে সঠিক পদ্ধতিতে পানি পান না করলে অনেকসময় তা শরীরের জন্য বিপদজনক হতে পারে। বিশেষ করে অনেকেই তাড়াহুড়ার সময় দাঁড়িয়ে পানি পান করেন। আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা অনুযায়ী এভাবে পানি পানে অনেক ধরনের সমস্যা হতে পারে। যেমন-
১. দাঁড়িয়ে পানি পান করলে অনেকসময় স্নায়ু উত্তেজিত হয়ে পড়ে। তখন উচ্চ রক্তচাপ বেড়ে যেতে পারে। এ কারণে এভাবে পানি পান করলে উদ্বেগ বাড়ার ঝুঁকি থাকে।
২. দাঁড়িয়ে পানি পান করলে শরীরের ভিতরে থাকা ছাঁকনিগুলো সংকুচিত হয়ে যায়। তখন শরীরের কার্যক্রম বিঘ্নিত হয় এবং শরীরে টক্সিনের মাত্রা বাড়তে থাকে।
৩. দাঁড়িয়ে পানি পানে কিডনির কর্মক্ষমতা কমে। ফলে কিডনি ক্ষতিগ্রস্ত বা বিকল হওয়ার আশঙ্কা থাকে।
৪. অনেকসময় দাঁড়িয়ে পানি পানে বুকের পেশীতে চাপ পড়ে। তখন আমাদের হৃদযন্ত্রের উপরেও চাপ সৃষ্টি হয় যা মারাত্মক বিপদ ডেকে আনতে পারে।
৫. দাঁড়িয়ে পানি পান করলে সরাসরি পাকস্থলীতে গিয়ে তা আঘাত করে। পাকস্থলী থেকে নিঃসৃত পাচক রসের কর্মক্ষমতা কমিয়ে দেয়। ফলে হজমের নানা সমস্যা তৈরি হয়। গ্যাস্ট্রো ইসোফেগাল রিফ্লাক্স ডিজিজ-এর মতো হজমের অসুখও হয়।
পানি পানের কিছু সঠিক পদ্ধতি রয়েছে।
যেমনঃ ১. সবসময়ই বসে পানি পান করা উচিত।
২. এক ঢোঁকে না খেয়ে ছোট ছোট চুমুকে পানি পান করা স্বাস্থ্যকর।
পানি পানের ক্ষেত্রে এই পদ্ধতি মেনে চলতে পারলে সহজেই সুস্থ, সতেজ থাকা সম্ভব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*