নাঙ্গলকোটে কোচিং সেন্টারে ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ

নাঙ্গলকোটে কোচিং সেন্টারে ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ
স্টাফ রিপোর্টার, কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে কোচিং সেন্টারে শিক্ষক কর্তৃক এক ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার সকালে পৌরসদরের হরিপুর গ্রামে একটি বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে। এলাকাবাসী জানায়,কুস্টিয়ার মাহবুবুর রহমান হেসাখাল ইউপির পাটোয়ার ফাজিল মাদ্রাসার ইংরেজি প্রভাষক হিসেবে কর্মরত আছেন তিনি।বৃহস্পতিবার সকালে ফোন করে পৌরসদরের এক ছাত্রীকে তার কোচিং সেন্টারে আসতে বলে ঐ ছাত্রী তার নিকট ইংরেজি পড়ে।সকালে প্রাইভেট পড়তে আসলে কেউ না থাকার সুবাধে ঐ বাসার দরজা বন্ধ করে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে তার জামা কাপড় ছিড়ে পেলে তার চিৎকারে স্হানীয়রা তাকে উদ্ধার করে। শিক্ষক মাহবুবকে ঘরে আটক রাখে পরে পাটোয়ার ফাজিল মাদ্রাসার ভাইস প্রিন্সিপাল রুহুল আমিন হেলালি ও পাটোয়ার সাদেকিয়া বালিকা মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওঃ আব্দুল জাব্বারকে ঐ শিক্ষক ফোন করলে তারা এসে শিক্ষককে এখান থেকে উদ্ধার করে সিএনজিতে তুলে দেন। মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুর রহমান রহমানি জানান,আমি ঢাকায় আছি এক শিক্ষকের মাধ্যমে ঘটনাটি শুনেছি। মাদ্রাসার গভর্নিং বডির বিদ্যুতসায়ী বেলাল হোসেন রিয়াজ সাংবাদিকদের বলেন,শুক্রবার দুপুরে মাদ্রাসার শিক্ষক শাহাআলম বিষয়টি আমাকে জানিয়েছে,শিক্ষক মাহবুব এক ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। অভিযুক্ত শিক্ষক মাহাবুব বলেন,ঐ ছাত্রী সকালে আমার কাছে এক হাজার টাকা হাওলাত চায়।আমি টাকা না দেওয়াতে সে চলে যায়।পরে ঐ ছাত্রী দুপুরে আমাকে ফোন করে বলে আপনি আমাকে ১০ হাজার টাকা দিবেন না হয় আপনাকে দেখে নেব।পরে ঐ মেয়েটি চার পাঁচ জন মহিলা নিয়ে এসে চিৎকার করতে থাকে।আমি মাদ্রাসার ভাইস প্রিন্সিপালকে ফোন করলে তিনি আমাকে উদ্ধার করেন। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার নাছির উদ্দিন বলেন,আমি এখনো অভিযোগ পায়নি পেলে ব্যবস্হা নেব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*