উচ্চতা ভীতিকে জয় করা সৌদি আরবের প্রথম নারী এয়ারবেটিক পাইলট আদওয়া

উচ্চতা ভীতিকে জয় করা সৌদি আরবের প্রথম নারী এয়ারবেটিক পাইলট আদওয়া

খলিল চৌধুরী, সৌদিআরব। উন্নত বিশ্বের প্রথম সারির দেশে মধ্যপ্রাচ্য সৌদি আরবের প্রথম এয়ারবেটিক নারী পাইলট আদওয়া- উচ্চতা ভীতিকে জয় করা সৌদি আরবের প্রথম নারী এয়ারবেটিক পাইলট এ নারী। উচ্চতা ভীতি ছিল তার । সঙ্গে ছিল ভয়কে জয় করবার ইচ্ছা । বর্তমানে সে সৌদি আরবের প্রথম এয়ারবেটিক নারী পাইলট ! মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নিউ ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় বৃহত্তম বিমানচালনা স্কুলে পাইলট হিসেবে প্রশিক্ষণ নেন তিনি । অভিজ্ঞতার কথা তার মুখ থেকে -“বাণিজ্যিক পাইলট হিসেবে প্রশিক্ষণের সময় একদিন আমার কলিগ অনেক উঁচুতে বিমানের ইঞ্জিন বন্ধ করে দেয় ! খুব দ্রুত বিমান নিচের দিকে পতিত হতে থাকে । একদম শেষ মুহূর্তে মাটিতে আঘাত হানার একটু আগে সে আবার ইঞ্জিন চালু করে দেয় । উপরে উঠতে থাকে বিমান ! এই সাংঘাতিক অভিজ্ঞতা উড়ার জন্য আমাকে সাহস যোগায় !” তিনি বলেন, পাইলট হিসেবে একা ফ্লাই করতে গিয়ে তার দ্বিতীয় ফ্লাইটটি ছিল সবচে কঠিন । কারণ, তখন মাত্র তিনি ব্যবহারিক অভিজ্ঞতা অর্জন করতে যাচ্ছেন । প্রথমবার একা বিমান উড়াচ্ছেন । তার আগ পর্যন্ত ছিলেন অন্য কলিগদের সঙ্গে । প্রথম এয়ারবোটিক পাইলট বহুল প্রতিভাধর সৌদি নারী আদওয়া পুরস্কার বিজয়ী করি। একজন উদ্যোক্তা, স্টক বিশ্লেষক, ক্যাপিটাল ট্রেডিং মার্কেট প্রতিযোগিতার বিজয়ী, একজন পেশাদার গিটারবাদকও তিনি । প্রথমবার একা একা বিমান চালনার অভিজ্ঞতা বিষয়ে আদওয়া বলেন, অবতরণের সময় হঠাৎ বাতাসের গতিপথ পরিবর্তন হয়ে যায় । প্রশিক্ষণের সময়ের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে তখন তিনি বিমানের ইঞ্জিন বন্ধ করে দেন । বিমান এরপর বাতাসের সঙ্গে তাল মিলিয়ে দ্রুত নিচে নেমে আসে নিরাপদে !

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*