সৌদি সরকার দেয়া অনিয়মের অভিযোগে বাংলাদেশের ১৭ হজ এজেন্সির লাইসেন্স বাতিল

সৌদি সরকার দেয়া অনিয়মের অভিযোগে বাংলাদেশের ১৭ হজ এজেন্সির লাইসেন্স বাতিল
খলিল চৌধুরী, সৌদিআরব। বিগত হজের সময় হাজিদের ও সৌদি সরকারের কাছ থেকে পাওয়া বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে ১৭ হজ এজেন্সির লাইসেন্স বাতিল করেছে ধর্ম মন্ত্রনালয়। তাছাড় ১৮টির বিরুদ্ধে জরিমানা ও বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।এ হজ এজেন্সির সঙ্গে কোনো লেনদেন না করতে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। তদন্ত শেষে গত ১৪ই জানুয়ারি ১৭টি এজেন্সির লাইসেন্স বাতিল করে প্রজ্ঞাপন জারি এবং শাস্তি ও সতর্কতার বিষয়ে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে ধর্ম মন্ত্রনালয়। জামানত বাজেয়াপ্ত ও হজ লাইসেন্স বাতিল হয়েছে আল আমিন ট্রাভেলস, বুশরা ট্রাভেলস এন্ড ট্যুরস, জামান এন্টারপ্রাইজ, সাঈদ এয়ার ইন্টারন্যাশনাল, এবং ইউরো এশিয়া ট্রাভেলস এন্ড ট্যুরসের। জামানত বাজেয়াপ্ত, হজ লাইসেন্স বাতিল ছাড়াও বিভিন্ন অংকের আর্থিক জরিমানা হয়েছে মদিনা এয়ার ইন্টারন্যাশনাল এভিয়েশন, সুহাইল এয়ার ইন্টারন্যাশনাল, ম্যক্সাজিম ট্রাভেলস এজেন্সি এন্ড ট্যুরস, আল হাজ ট্রাভেল ট্রেড, ব্রাইট ট্রাভেলস, আল বারি ট্রাভেলস ইন্টারন্যাশনাল, ক্লাব ট্রাভেলস সার্ভিস, রয়েল তাইবা এভিয়েশন, এস আহমেদ ট্যুরস এন্ড ট্রাভেলস, সোহারাদা ওয়াহেদ এয়ার ট্রাভেলস, হাজী হাফেজ ট্রাভেলস এন্ড ট্যুর এবং সাওবান এয়ার ট্রাভেলসের। এছাড়া, কলম্বিয়া ট্রাভেলস ইন্টারন্যাশনালকে ১০ লাখ, আল জিয়ারত ইন্টারন্যাশনালকে ২ লাখ, এস্যুরেন্স এয়ার সার্ভিসকে ৫ লাখ, আল হায়াত এভিয়েশনকে ৫ লাখ, হিজল ট্যুরস এএন্ড ট্রেডার্সকে ৩ লাখ, ইব্রাহিম ট্রাভেলসকে ২ লাখ, জিয়ারত ই কাবা ট্যুরস এন্ড ট্রাভেস কে ২ লাখ, এম এ এম ইন্টারন্যাশনাল এন্ড ট্যুরসকে ৫ লাখ, এভারগ্রীন ট্যুরস এন্ড ট্রাভেলসকে ২ লাখ, মাবরুর এয়ার ইন্টারন্যাশনালকে ৩ লাখ, সাউথ এশিয়ান ওভারসীস নেটওয়ার্ককে ৫ লাখ, আল কাবা ট্রাভেলস এন্ড ট্যুরিজমকে ৩ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বিভিন্ন অংকের জরিমানাসহ তিন বছরের জন্য লাইসেন্স স্থগিত হয়েছে গোল্ডেন ট্রাভেলস এন্ড কার্গো সার্ভিসের, জেটওয়ে ট্রাভেলস এর লাইসেন্স দুই বছরের জন্য এবং মিডিয়া ট্রাভেলস সার্ভিস, সেন্ট্রাল ট্রাভেলস এন্ড ট্যুরস, শুয়াইব এয়ার ইন্টারন্যাশনাল, এবং হোলি দারূন্নাজাত হজ ওভারসিসের লাইসেন্স এক বছরের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) মহাসচিব শাহাদাত হোসাইন তসলিম বলেন, আগামী হজের বিষয়ে এজেন্সিগুলো আমরা বিশেষ সতর্ক থাকতে বলেছি। হজ ব্যবস্থাপনায় যাতে কোন রকমের সমস্যা না হয়, সে লক্ষ্যে সরকার এবং হাব সকল ধরণের সহযোগিতা করবে। হজ যাত্রীদেরও এজেন্সিগুলোর বিষয়ে ভালোভাবে খোঁজ খবর নিয়ে যাওয়ার জন্যও আমরা অনুরোধ করছি।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*