উন্নত প্রশিক্ষণ প্রদান পূর্বক প্রাথমিক দন্ত চিকিৎসক স্বীকৃতি প্রদানের জোরালো দাবী

তৃতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভায় আলহাজ্ব ফরিদ মাহমুদ
উন্নত প্রশিক্ষণ প্রদান পূর্বক প্রাথমিক দন্ত চিকিৎসক স্বীকৃতি প্রদানের জোরালো দাবী

নিজস্ব প্রতিবেদক : বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে দেশের স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়ন হওয়ার পাশাপাশি দেশের সব মানুষ এখন স্বাস্থ্যসেবা পাওয়ার অধিকার ফিরে পেয়েছে। স্বাস্থ্যসেবার আমূল পরিবর্তন এসেছে দেশে। শহরের মানুষ যেভাবে স্বাস্থ্যসেবার সুযোগ পাচ্ছে, তেমনি গ্রামীণ জনপদের মানুষগুলোও সমান সুযোগ-সুবিধা সম্বলিত স্বাস্থ্যসেবার সুযোগ পাচ্ছে। ক্রমান্বয়ে মাতৃ মৃত্যুর হার কমেছে, মানুষের গড় আয়ু বেড়েছে, যক্ষা-হাম-এইডস সহ নানা সংক্রামক রোগের রোগীর সংখ্যা হ্রাস পেয়েছে। বলতে গেলে এর পিছনে ডিগ্রীধারী প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত চিকিৎসকরা যেমন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে তেমনি এ অগ্রগতির পেছনে ডিপ্লোমাধারী প্রাথমিক চিকিৎসকদেরও যুগান্তকারী ভূমিকা রয়েছে। কারও অবদান ও মূল্যায়নকে ছোট করে দেখার বিষয় নয়। সবার সমান সুযোগ কার্যক্রমে ও পরিশ্রমে স্বাস্থ্যসেবায় এ মানোন্নয়ন ঘটেছে। এর পেছনে ডিপ্লোমাধারী প্রাথমিক দন্ত চিকিৎসকদেরও অমূল্য অবদান রয়েছে। তাই দেশের দুই লক্ষ্যের অধিক প্রাথমিক দন্ত চিকিৎসকদেরকে উন্নত প্রশিক্ষণ প্রদান পূর্বক প্রাথমিক দন্ত চিকিৎসক স্বীকৃতি প্রদান এখন সময়ের দাবী। অবিলম্বে ডিপ্লোমা ডিগ্রীধারী দু’লক্ষেরও অধিক প্রাথমিক দন্ত চিকিৎসকদের সরকারী স্বীকৃতি দিতে হবে। বৃহত্তর চট্টগ্রাম ডেন্টাল এসোসিয়েশনের তৃতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক আলহাজ্ব ফরিদ মাহমুদ উপরোক্ত মন্তব্য করেন।
বৃহত্তর চট্টগ্রাম ডেন্টাল এসোসিয়েশনের তৃতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও স্বাস্থ্য বিষয়ক সেমিনার ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান গত ৯ ফেব্রুয়ারী শনিবার সকাল ১০ টায় নগরীর জেলা পরিষদ মিলনায়তনে সংগঠনের সভাপতি মোহাম্মদ জামাল উদ্দীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।
বর্ণাঢ্য এ বর্ষপূর্তির অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মহানগর যুবলীগের যুগ্ন আহব্বায়ক আলহাজ্ব ফরিদ মাহমুদ। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার বীর মুক্তিযোদ্ধা জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, বিজয় ‘৭১ এর সভাপতি নাট্যজন সজল চৌধুরী, বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চারনেতা স্মৃতি পরিষদের সাধারন সম্পাদক মোঃ আবদুর রহিম, ডিজিটাল বাংলাদেশ পাবলিসিটি কাউন্সিলের সিনিয়র সহ সভাপতি জসিম উদ্দিন চৌধুরী, সাংবাদিক ও সংগঠক স ম জিয়াউর রহমান, বাংলাদেশ পল্লী চিকিৎসক সোসাইটির কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ডাঃ সুভাষ চন্দ্র সেন, চট্টগ্রাম অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি অধ্যক্ষ মুকতাদের আজাদ খান।
সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আলহাজ্ব ফরিদ মাহমুদ আরো বলেন, পৃথিবীর কোন দেশে বিকল্প কর্মসংস্থান সৃষ্টি না করে চলমান কর্মসংস্থান বন্ধ করার কোন নিয়ম নেই। কারণ ব্যক্তির কর্মসংস্থানের উপর নির্ভর করে তার মান-সম্মান ও জীবন-জীবিকা। তাই ডিপ্লোমাধারী দন্ত চিকিৎসকদেরকে উন্নত ও যুগোপযোগী প্রশিক্ষণ প্রদান পূর্বক প্রাথমিক দন্ত চিকিৎসকদের স্বীকৃতি প্রদান করে দেশের চিকিৎসা সেবার উন্নয়নে তাদেরও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার সৃষ্টি করে দিতে হবে।
বক্তারা আরো বলেন, গ্রামীণ স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়নে গ্রামীণ দন্ত চিকিৎসকদের ভূমিকা অপরিহার্য। বর্তমান সরকার স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়নে ও চিকিৎসা ব্যবস্থার আধুনিকায়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। সরকারের স্বাস্থ্যসেবা জনগণের দৌড়গোড়ায় পৌঁছে দিতে গ্রামীণ চিকিৎসকদের ভূমিকা অনস্বীকার্য। দক্ষ ও বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়নে ও উন্নত জাতি গঠনে যে পরিমান ভূমিকা রাখছে সেখানে গ্রামীন ডিপ্লোমাধারী চিকিৎসকদেরও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। বক্তারা সকলকে সকল মানুষের মৌলিক চাহিদা সুস্বাস্থ্য নির্মাণে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানান।
সংগঠনের সাধারন সম্পাদক অভিজিৎ দে রিপনের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন সংগঠক এ কে এম আবু ইউসুফ, লায়ন ডাঃ আরকে রুবেল, বীর মুক্তিযোদ্ধা লিয়াকত হোসেন, রতন দাশ গুপ্ত, কবি সজল দাশ, মিনহাজ উদ্দীন, নাছির উদ্দীন, সাজিব বড়ুয়া সাজু, মনির আজাদ, শামীম আহসান, কানু দাশ, জয়া ভট্টচার্য, মিলন বারিকদার, নুরুল ইসলাম, অজিৎ চন্দ্র দে সুজন, বিপ্লব ভট্টাচার্য, হারুন অর রশীদ, অনিল বড়ুয়া, অনিল, শামীম হোসেন, সাইফুল আলম, সুশান্ত নাথ, সমীর পাল, ইমরান সোহেল, নুর মোহাম্মদ, এন আলম, অহিদুল আলম, দুলাল মিয়া প্রমুখ। আলোচনা সভা শেষে অতিথিবৃন্দ সংগঠনের তৃতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে প্রকাশিত ‘দর্পণ’ স্মারক সংখ্যার মোড়ক উন্মোচন করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*