কুমিল্লার দেবিদ্বারে পুকুর থেকে মৎস্য শ্রমিকের লাশ উদ্ধার

কুমিল্লার দেবিদ্বারে পুকুর থেকে মৎস্য শ্রমিকের লাশ উদ্ধার
সাকিব অাল হেলাল(কুমিল্লা) :: কুমিল্লা জেলার দেবিদ্বার উপজেলার ভানী ইউনিয়নের সূর্যপুর গ্রামের সূর্য্যপুর উচ্চ বিদ্যালয়’র পেছন থেকে সোমবার দুপুর ৩টায় ‘একতা হ্যাচারীর পুকুর থেকে মৎস্য শ্রমিক আল আমিন (২৫)’র লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ভানী ইউনিয়নের সূর্যপুর গ্রামে একতা হ্যাচারীর কর্মচারী মোঃ আল আমিনকে রোববার রাত ৮টা থেকে তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। অনেক খোঁজা খোঁজির পর তাকে না পেয়ে সোমবার দুপুরে ওই হ্যাচারীর মালিক বেলাল হোসেন ‘একতা মৎস খামারে জাল ফেললে আল আমিনকে মৃত অবস্থায় জালে আটকা অবস্থায় পাওয়া যায়। এদিকে ওই ঘটনার খবর পেয়ে দেবিদ্বার থানার উপ-পরিদর্শক (এস.আই) মিঠুন সিংহ একদল পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে বিকাল সাড়ে ৫টায় লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। সে কুড়িগ্রাম জেলার রাজারহাট উপজেলার গতিআসাম গ্রামের মোঃ রফিকুল ইসলামের ছেলে। ওই হ্যাচারীতে আল আমিন ছাড়াও আরো ৬/৭ জন শ্রমিক কাজ করে। দেবিদ্বারে নিখোঁজের ১৯ ঘন্টা পর হ্যাচারী খামার থেকে মৎস্য কর্মীর লাশ উদ্ধার হ্যাচারীর মালিক বেলাল উদ্দিন জানান, সূর্য্যপুর এবং কুটুম্বপুর এলাকায় তার আরো কয়েকটি হ্যাচারী ও মৎস খামার রয়েছে। তার বাড়ি জামালপুর’র মাদারগঞ্জ উপজেলার বিনোদটঙ্গী গ্রামে। তার পিতার নাম মৃতঃ সামসুল হক। সে এ এলাকায় প্রায় ২০ বছর যাবৎ হ্যাচারী ও মৎস খামার ব্যবসা করে আসছে। এসব খামারগুলোতে স্থানীয় শ্রমিক ছাড়াও তার নিজ এলাকা এবং কুড়িগ্রামের অনেক শ্রমিক আছে। আল আমিন অসুস্থ্য ছিল তার পেটের অসুখ ও পেট ব্যাথা ছিল, রোববার রাত ৮টা থেকে সে নিখোঁজ হয়। সোমবার খামারে জাল ফেলে তাকে মৃত: অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। দেবিদ্বার থানার উপ-পরিদর্শক (এস.আই) মিঠুন সিংহ জানান, প্রাথমিক রিপোর্ট করার সময় তার শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। স্থানীয়দের তথ্য অনুযায়ী তার কোন শত্রু ছিলনা। মালিক ও খুব ভালো মানুষ। তবে ময়না তদন্তে পরই মৃত্যুর কারন জানা যাবে। এ ব্যাপারে দেবিদ্বার থানার ওসি মোঃ জহিরুল আনোয়ার জানান, আল আমিনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তার পরিবারের লোকজন কুড়িগ্রাম থেকে রওয়ানা হয়েছেন। মঙ্গলবার লাশের ময়না তদন্তে জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হবে। ময়না তদন্তের রির্পোট হাতে পেলে তার মৃত্যু কারণ বলা যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*