উখিয়ায় রোহিঙ্গার মাঝে তুর্কীর শুকনো খাদ্য বিতরণ

উখিয়ায় রোহিঙ্গার মাঝে তুর্কীর শুকনো খাদ্য বিতরণ
শ.ম.গফুর.উখিয়া,কক্সবাজার: রোহিঙ্গা সংকটের শুরু থেকেই উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে মানবতার তরে কাজ করে যাচ্ছে তুর্কি সরকারের পৃষ্টপোষকতায় পরিচালিত তুর্কি সাহায্য সংস্থা ‘টিকা’। সংস্থাটি রোহিঙ্গাদের খাদ্য সংকট দূরীকরণ ও জীবনমান উন্নয়নের জন্য প্রবল চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এই জন্য শুরু থেকে খাাবার বিতরণ, খাদ্যপণ্য বিতরণসহ সব ধরণের মানবিক সেবা দিয়ে আসছে। এবার রোহিঙ্গাদের উন্নতমানের সম্পন্ন খাদ্যপণ্য সরবরাহ শুরু করেছে। বৃহস্পতিবার উখিয়ার শফিউল্লাহ কাটা ক্যাম্পে এই উন্নতমানের খাদ্যপণ্য বিতরণ কার্যক্রম শুরু করেছে ‘টিকা’।
সংস্থার দায়িত্বশীল লোকজন জানান, উন্নত চাহিদা পূরণে রোহিঙ্গাদের উচ্চ গুণাগুণ সম্পন্ন খাদ্যপণ্য বিতরণ করছে ‘টিকা’। এর অংশ হিসেবে শফিউল্লাহ কাটা ক্যাম্পের ৫ হাজার রোহিঙ্গা পরিবারের মাঝে ১১ আইটেমের সহকারে এক বস্তা খাদ্য পণ্য দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে বিস্কিট, চিনি, লবণ, মরিচ, পিয়াজ, রসুন।
রোহিঙ্গাদের মাঝে এসব খাদ্যপণ্য বিতরণে অনেক প্রস্তুতি নিয়েছিলো ‘টিকা’ কর্তৃপক্ষ। এই জন্য তারা কয়েকদিন ধরে খাদ্যপণ্য মজুদ এবং রোহিঙ্গাদের মাঝে কার্ড বিতরণসহ নানা কার্যক্রম চালায়। সব প্রক্রিয়া শেষে প্রশাসন ও সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে খাদ্যপণ্যগুলো বিতরণ করা হয়েছে। এসব খাদ্যপণ্য নিতে রোহিঙ্গা নারী-পুরুষের ঢল নামে।
খাদ্য বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- ‘টিকা’র কো-অর্ডিনেটর ইসমাইল গনডাস ওজলো, ডেপুটি কো-অর্ডিনেটর তোলজা আরসলান, এসিসট্যান্ট কো-অর্ডিনেটর রিয়াদুর রহমান, বাংলাদেশী কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম, মঞ্জুর আলম। এছাড়াও ডালিয়া, হাশেম, কাসেমসহ মাঠ পর্যায়ের অন্যান্য কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।
উচ্চ মানসম্পন্ন এসব খাদ্যপণ্য পেয়ে রোহিঙ্গারা অনেক খুশি হয়েছেন। তারা আগামীতে খাদ্যপণ্য হিসেবে এসব পণ্য পেতে আগ্রহ জানিয়েছেন।
‘টিকা’র তুর্কি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, এসব উচ্চ মান সম্পন্ন খাদ্যপণ্য সরবরাহ অব্যাহত থাকবে। তুর্কি সরকার রোহিঙ্গাদের সহায়তা দেয়ার জন্য অনেক আগ্রহী। রোহিঙ্গাদের জন্য তুর্কি সরকারের সব ধরণের সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে বলে তারা আশ্বাস দিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*