মিরপুরে আমরা নতুন শিক্ষা নিকেতন’র বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠান

মিরপুরে আমরা নতুন শিক্ষা নিকেতন’র বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠান
এস.এম.আবু ওবাইদা-আল-মাহাদী, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, কুষ্টিয়া ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলা কৃষি অফিসার রমেশ চন্দ্র ঘোষ বলেছেন, খেলাধুলার সঙ্গে স্বাস্থ্য ও মনের একটা নিবিড় সম্পর্ক রয়েছে। ‘খেলাধুলার মূল কথা হলো প্রতিযোগিতামূলক মনোভাব সৃষ্টি করা। প্রতিযোগিতামূলক মনোভাব খেলোয়াড়দের মধ্যে তৈরী করে শৃঙ্খলাবোধ, অধ্যবসায়, দায়িত্ববোধ, কর্তব্যপরায়ণতা ও পেশাদারিত্ব। সুস্থ দেহ মানেই সুস্থ মন। খেলাধুলা জীবনকে করে সুন্দর, পরিশীলিত’। আজ শুক্রবার সকাল ৯টায় মিরপুর মিরপুর মহিলা ডিগ্রী কলেজ মাঠে পৌরসভার প্রাণ কেন্দ্রে অবস্থিত আমরা নতুন শিক্ষা নিকেতন’র বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগীতা ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচকের বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। আমরা নতুন শিক্ষা নিকেতন’র প্রতিষ্ঠাতা, ব্যবস্থাপনা পরিচালক, দৈনিক গ্রামের কাগজ পত্রিকার কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি বাবলু রঞ্জন বিশ্বাস আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন শেষে অনুষ্ঠানের প্রধান আলোচক রমেশ চন্দ্র ঘোষ আরো বলেন, খেলাধুলার মাধ্যমে শিশুদেরকে প্রতিযোগী মনোভাব তৈরি করে দেয়। শিশুদের দৈহিক ও মানষিক বিকাশের জন্য খেলাধুলা এবং প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহনটাই বড়। লেখাপড়ার পাশাপাশি নৈতিক মূল্যবোধ সৃষ্টির জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও পরিবারের মধ্যে সমন্বয় রেখে তাদেরকে দেশ প্রেমে উদ্বুদ্ধ করতে হবে। এছাড়াও খেলা যেমন মানুষের দেহ ও মনকে সুন্দর রাখে, তেমনি জীবনের চলার পথটা করে দেয় সুন্দর। সুস্থ দেহ থাকলে, একটা সুস্থ মনও থাকবে। এই মন আর এদিক-ওদিক যাবে না। নিকেতন’র অধ্যক্ষ জীবন কৃষ্ণ পালের সভাপতিত্বে আমন্ত্রিত অতিথির বক্তব্য রাখেন, মিরপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডিজিএম রুমি এনামুল হক, দৈনিক মাটির পৃথিবী পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক এম এ জিহাদ, মিরপুর পৌরসভার ২নং প্যানেল মেয়র সাংবাদিক জমির উদ্দিন, মিরপুর প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি হাজী আছাদুর রহমান বাবু, দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকার মিরপুর প্রতিনিধি হুমায়ন কবির হিমু, মানবজমিন পত্রিকার মিরপুর প্রতিনিধি মারফত আফ্রিদী। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন আলো সংস্থার নির্বাহী পরিচালক সাংবাদিক ফিরোজ আহমেদ। সকাল ৯টায় শিক্ষার্থীদের সমাবেশের মাধ্যমে জাতীয় সংগীত পরিবেশনা ও জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিক ভাবে ক্রীড়া প্রতিযোগিতা শুরু হয়। ১৭টি ইভেন্টের খেলা পরিচালনা করেন নিকেতন’র সহকারী শিক্ষক বিচিত্রা রানী পাল, রূপা রাণী পাল, সুব্রত কুমার টুটুল পন্ডিত, সোনিয়া খাতুন এবং প্রেমা রানী। পরবর্তীতে সকল বিজয়ী এবং নিকেতন’র আয়া রুবিনা খাতুন অতিথিদের হাত থেকে পুরস্কার গ্রহণ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*