মিরসরাইয়ে ১৭ দিনব্যাপী স্বাধীনতা মেলার উদ্বোধন

মিরসরাইয়ে ১৭ দিনব্যাপী স্বাধীনতা মেলার উদ্বোধন

সাদমান সময়, (মিরসরাই) : মিরসরাইয়ে ১৭দিনব্যাপী স্বাধীনতা মেলার উদ্বোধন করা হয়েছে। শুক্রবার (১৫ মার্চ) বিকেলে উপজেলার আবুতোরাব উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে মেলার উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপি।
মেলায় উপস্থিত শিক্ষার্থী ও আগত দর্শনার্থীসহ সম্মিলিতভাবে জাতীয় সঙ্গীত গেয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে মেলার উদ্বোধন করেন ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপি। 
স্বাধীনতা মেলা উদ্যাপন পরিষদের সদস্য সচিব কবির আহম্মদ নিজামীর উপস্থাপনায় ও চেয়ারম্যান শেখ মোঃ আতাউর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি জিতেন্দ্র প্রসাদ নাথ মন্টু, উপজেলা চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) ইয়াছমিন আক্তার কাকলী, নব নির্বাচিত (বেসরকারীভাবে) উপজেলা চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রুহুল আমিন, আ’লীগ নেতা মহিউদ্দিন রাশেদ, খোরশেদ আলম আজাদ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী, মিরসরাই পৌরসভার মেয়র গিয়াস উদ্দিন, নব নির্বাচিত (বেসরকারীভাবে) উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এম আলাউদ্দিন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ইসমত আরা ফেন্সী, উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এনায়েত হোসেন নয়ন, মঘাদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হোসাইন, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তানভীর হোসেন তপু, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাসেল ইকবাল প্রমুখ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপি বলেন, ‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চে রেসকোর্সের ময়দানে ১৮ মিনিটের ভাষনই স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র। বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় থাকাকালে ঐতিহাসিক এ ভাষন বাজানো বন্ধ ছিলো। অথচ এ ভাষনটিকে ইউনেস্কো স্বীকৃতি দিয়েছে। বঙ্গবন্ধুর এ ভাষণ থেকে স্বাধীনতা যুদ্ধের জন্য প্রস্তুতি নিতে শুরু করে বাংলার জনগন। ওই সময় আমরা মিরসরাইয়ের সীমান্তে অবস্থিত শুভপুর ব্রীজে আগুন লাগিয়ে পাকিস্তানী সৈনিকদের গতি প্রতিরোধ করেছিলাম। স্বাধীনতা মেলায় তরুণ প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস শিখবে,জানবে। মুক্তিযুদ্ধ বাঙ্গালির সোনালী ইতিহাস। আজকে যে আমরা মুক্তপ্রাণে স্বাধীন দেশে বাস করছি সেটা মুক্তিযুদ্ধের অবদান।’ মেলার প্রথম দিন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করে আবুতোরাব উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*