আটোয়ারীতে অজ্ঞাত রোগে একই পরিবারের ৭জন অসুস্থ : ৬ জন হাসপাতালে

আটোয়ারীতে অজ্ঞাত রোগে একই পরিবারের ৭জন অসুস্থ : ৬ জন হাসপাতালে
আটোয়ারী (পঞ্চগড়) প্রতিনিধি :
পঞ্চগড়ের আটোয়ারীর পল্লীতে অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত হয়ে একই পরিবারের ৭ জন নারী পুরুষ অসুস্থ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। একই পরিবারের প্রায় সবাই অসুস্থ হওয়ার খবর গ্রামে ছড়িয়ে পড়লে তাৎক্ষনিকভাবে প্রতিবেশীরা তাদের উদ্ধার করে ৬ জনকে আটোয়ারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। ঘটনাটি গত বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার তোড়িয়া ইউনিয়নের দরমপাড়া গ্রামে ঘটে। ওই গ্রামের গৃহকর্তা খাজিব উদ্দীন ওই দিন ফকিরগঞ্জ বাজার হতে রাত প্রায় ৯টার সময় বাড়ি ফিরে দেখেন তার স্ত্রী সহ পরিবারের সকল সদস্য বিক্ষিপ্ত ভাবে অচেতন অবস্থায় কেউ বারান্দায়, কেউ ঘরের মেঝেতে পড়ে রয়েছে। এঅবস্থায় তিনি চিৎকার দিলে প্রতিবেশীরা ছুটে আসেন এবং অবস্থা বেগতিক দেখে দ্রুত তাদের হাসপাতালে নিয়ে আসেন। বর্তমানে ওই পরিবারের খাজিব উদ্দীনের স্ত্রী দবিজান বেগম (৬০), খাজিব উদ্দীনের পুত্র হাসিবুর রহমান (৪৫), কন্যা খালেদা বেগম (২৫), খাতিজা বেগম (২২), উম্মে কুলসুম (২০) এবং জামাতা মেজর আলী (৩৫) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাঃ হুমায়ুন কবীর বলেন, রোগীরা বর্তমানে আশংকামুক্ত। তবে পুর্নাঙ্গ সুস্থ হতে প্রায় ৩ থেকে ৭দিন লেগে যেতে পারে। তিনি আরো বলেন- প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে অতি মাত্রার ঘুমের ঔষুধ খাবারের সাথে মিশিয়ে খাওয়ানোর কারণে এঅবস্থার সৃষ্টি হতে পারে। এব্যাপারে গৃহকর্তা খাজিব উদ্দীনের সাথে কথা বললে তিনি জানান, অসৎ উদ্দেশ্যে কেহ আমার বাড়ির খাবারে নেশা জাতীয় দ্রব্য মিশিয়ে দিতে পারে। তিনি আরো জানান, রোগীদের চিকিৎসা কাজে ব্যস্ত থাকায় বাড়ীতে কোন কিছু খোয়া গেছে কিনা তা বলতে পারছিনা। আটোয়ারী থানার এস.আই মোঃ শাহিনুর ইসলাম জানান, পুলিশের ধারণা চুরি কিংবা যেকোন অসৎ উদ্দেশ্যে অজ্ঞান পার্টীর সদস্যরা খাবারের সাথে নেশা মিশিয়ে ফায়দা লুটতে চেয়েছিল। কিন্তু গৃহকর্তা দ্রুত বাড়িতে ফেরায় তারা সফল হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*