পাইকগাছায় চাকরির নামে লাখ-লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়া মামলায় একজনের ৩ বছর কারাদন্ড

পাইকগাছায় চাকরির নামে লাখ-লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়া মামলায় একজনের ৩ বছর কারাদন্ড
পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি।। খুলনার পাইকগাছায় চাকুরীর প্রলোভন দেখিয়ে লাখ-লাখ টাকা হাতিয়ে নেবার অভিযোগের মামলায় আদালত বিকাশ দাস নামে এক ব্যক্তিকে জরিমানা সহ ৩ বছরের সাজা দিয়েছেন। উপজলার জিরবুনিয়ার নয়ন মন্ডলের দায়ের করা মামলায় পাইকগাছার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত এ রায় দেন। এদিকে একই আদালতে বিকাশের বিরুদ্ধে প্রতারনা ও বিশ্বাস ভঙ্গের ঘটনায় আরো ২টি মামলায় গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করেছেন। উল্লেখ্য পলাতক বিকাশ দাস গোপালগঞ্জ জেলার কাশিয়ানী উপজেলার রামদিয়ার বাসিন্দা।
আদালত সুত্রে ও বাদী পক্ষ্যের আইনজীবি আঃ রাজ্জাক মামলার রায়ের বর্ননা দিয়ে জানান, গত বছর বিকাশ চন্দ্র দাস তাঁর ব্যাংক চেক দিয়ে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক ও ফায়ার সার্ভিসে চাকরী দেবার কথা বলে উপজেলার দেলুটি’র জিরবুনিয়ার তারক মন্ডলের কাছ থেকে ৪ লাখ টাকা নেয়। এক সময়ে জামাতা ও মেয়ের চাকুরী দিতে ব্যর্থ হলে এক পর্যায় লিগ্যাল নোটিশ ও চেক ডিজঅনার করে তারকের ছেলে নয়ন মন্ডল বাদী হয়ে বিকাশ দাসের বিরুদ্ধে পাইকগাছার সিনিয়র-জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সিআর ৫৭৯/১৮ মামলা করে। চলতি ১১ এপ্রিল আদালতের বিচারক পলাশ কুমার দালাল মামলার রায়ে বিকাশের বিরুদ্ধে ৩ বছরের সাজা দিয়ে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন। অনাদায় আরো ৬ মাসের কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন। এদিকে বিভিন্ন দপ্তরে চাকুরীর কথা বলে এলাকা থেকে বিকাশ দাস প্রায় অর্ধকোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন বলে এলাকাবাসী অভিযাগ করেছেন। এসব অভিযোগের বর্ননা দিয়ে জিরবুনিয়ার ভূধর মন্ডলের ছেলে মধূসুদন মন্ডল জানান, তাঁর কাছ থেকে বিকাশ দাস চাকুরীর কথা বলে কয়েক লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। টাকা আদায় ব্যর্থ হলে তিনি একই আদালতে পৃথক-পৃথক ভাবে সিআর- ৮৩৪/১৮ ও সিআর- ৮৩৫/১৮ মামলা করলে আদালত বিকাশ দাসের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*