ট্রাফিক পক্ষ-২০১৯ উপলক্ষে সিএমপি’র ট্রাফিক বিভাগের উদ্যোগে শৃঙ্খলা ও সচেতনতামূলক কার্যক্রম

ট্রাফিক পক্ষ-২০১৯ উপলক্ষে সিএমপি’র ট্রাফিক বিভাগের উদ্যোগে শৃঙ্খলা ও সচেতনতামূলক কার্যক্রম

নিজস্ব প্রতিবেদক : ট্রাফিক পক্ষ-২০১৯ (১৬-৩০এপ্রিল) উপলক্ষে চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) ট্রাফিক বিভাগ সড়কে শৃঙ্খলা আনয়ন, দুর্ঘটনা রোধ ও ট্রাফিক সচেতনতা বিষয়ে কাজ করে যাচ্ছে। আজ ২০ এপ্রিল ২০১৯ ইং শনিবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বেলা সাড়ে ১২টা পর্যন্ত সিএমপি’র ট্রাফিক-উত্তর বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি-ট্রাফিক) হারুন-অর-রশিদ হাযারী নগরীর জিইসি মোড়ে ট্রাফিক সচেতনতা ও সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে কাজ করেন। এ সময় পায়ে হেঁটে কানে হেডফোন লাগিয়ে গান শুনে শুনে ও মোবাইলে কথা বলতে বলতে রাস্তা পারাপারকালে শতাধিক পথচারীর কাছ থেকে হেডফোন ও মোবাইল কেড়ে নিয়ে তাদেরকে শেষবারের মতো সতর্ক করেন উপ-পুলিশ কমিশনার হাযারী। তিনি পথচারীদেরকে মোবাইল ফোনগুলো ফেরত দিলেও হেডফোন গুলো গাড়ীর চাকার নিচে দিয়ে ধ্বংস করে ফেলেন। এছাড়া ডকুমেন্টবিহীন গণপরিবহন ও ব্যক্তিগত গাড়ী ও চালকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের এবং মোটর সাইকেল আরোহীদের মধ্যে হেলমেট থাকা সত্ত্বেও যারা মাথায় পরিধান করেননি তাদেরকে হেলমেট পরিয়ে দেন ট্রাফিকের এই উপ-পুলিশ কমিশনার। আবার কিছু কিছু শিশু, বৃদ্ধ, শিক্ষার্থী ও পথচারীদেরকে রাস্তা পারাপারে সহায়তা করেন তিনি। সিএমপি’র ট্রাফিক-উত্তর বিভাগের ইন্সপেক্টর (টিআই-পাঁচলাইশ) সুমন জাহিদ লোভেল, সার্জেন্ট মো: নাসির উদ্দিন, সার্জেন্ট হেপী বেগম, সার্জেন্ট জাবেদ মিয়া, টিএসআই ময়নাল হোসেন, সার্জেন্ট শারিফুর রহমান সবুজ ও কনস্টেবলরা উপ-পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক-উত্তর)মো: হারুন-অর-রশিদ হাযারীর সাথে ছিলেন।
তিনি বলেন, সারাদেশের মতো চট্টগ্রামেও ১৬ এপ্রিল থেকে ট্রাফিক পক্ষ-২০১৯ শুরু হয়েছে। ৩০ এপ্রিল ট্রফিক পক্ষ শেষ হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় সড়কের দূর্ঘটনা রোধ, ট্রাফিক ব্যবস্থাপনায় শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা, বেপরোয়া গাড়ী চলাচল থেকে ড্রাইভারদের বিরত রাখা, রোড সাইন চিনে গাড়ী চালানো, ছাত্র-ছাত্রী ও পথচারীসহ সকলের নিরাপদ যাত্রা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। পরিবহন চালক-হেলপারসহ সর্বস্তরের জনগণ সচেতন হলে দূর্ঘটনা অনেকাংশেই রোধ হবে ও সড়কে শৃঙ্খলা ফিরে আসবে। এজন্য সকলের আন্তরিক সহযোগিতা প্রয়োজন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*