কমলগঞ্জ পৌর এলাকাতে জমিজমা সংক্রান্তার জেরে ভাসুর কর্তৃক নির্যাতিত

কমলগঞ্জ পৌর এলাকাতে জমিজমা সংক্রান্তার জেরে ভাসুর কর্তৃক নির্যাতিত

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি,, মৌলভী বাজারের কমলগঞ্জ পৌরসভার পানিশালা গ্রামে ভাসুর কর্তৃক নির্যাতিত হয়ে এক মহিলা উপজেলা ৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন আজ সকালে। আজ ৪ মে রোজ শনিবার সকাল সাড়ে ১০ ঘটিকায় কমলগঞ্জ পৌর এলাকার ২নং ওয়ার্ড পানিশালা গ্রামে গ্রামের মৃত হামদু মিয়ার বাড়িতে এ ঘটনাটি ঘটে কমলগঞ্জ থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি আহত রেকসনা বেগম (২৭) ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায় মৃত হামিদ মিয়ার ছেলে আহাদ মিয়া (৪৫)ও তার ভাই আমির মিয়া (৪০) এই দুজনের মাঝে বসত করে সীমানা প্রাচীর ও ওই জায়গা নিয়ে বিরোধ চলছিল। এবং এ নিয়ে এলাকায় কয়েকবার গ্রাম্য সালিশ বৈঠকও হয়েছে। তবে গতকাল রাত থেকে এ বিষয়ে দুই ভাইয়ের মাঝে মনোমালিন্য তা দেখা দিলে তারই জেরে। নির্যাতিতার ভাসুর আহাদ মিয়া ও বউ সুফিয়া বেগম দুজন মিলে নির্যাতিতার বসত ঘরে গিয়ে তাকে একা পেয়ে আচমকা মারধর শুরু করে। কিল ঘুষি লাথি মারতে থাকে, এক পর্যায়ে নিজেকে এই হামলা থেকে বাঁচাতে চিৎকার করলে প্রতিবেশীরা এসে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে হাসপাতালে ভর্তি করেন। আহত রেকসনার স্বামী আমির মিয়া বলেন, হামলার সময় আমি বাড়িতে ছিলাম না তাই এই সুযোগে আমার বউকে তারা একা পেয়ে মারধর করেছে। আমির মিয়া আরো বলেন আমি বিষয়টি কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র কে জানিয়েছি এবং লিখিতভাবে থানাকে বিষয়টি জানাবো।মুঠোফোনে এ বিষয়ে জানতে চাইলে কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র জুয়েল আহমদ জানান আহাদ মিয়া বিষয়টি আমাকে জানিয়ছে এবং এই বিষয়টি কয়েকবার সমাধান করার চেষ্টা করা হয়েছে। আহাদ মিয়ার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন,আমাকে এবং আমার পরিবারের লোকজনকে তারা সবাই মিলে মারধর করেছে মারধরে আক্রান্ত হয়ে আমার বউ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*