চকরিয়ায় মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ

চকরিয়ায় মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ
চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি ;:: কক্সবাজারের চকরিয়া পৌরশহরের মগবাজারে চকরিয়া উম্মাহাতুল মো’মেনীন মহিলা দাখিল মাদ্রাসার পাশে একটি রুমে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে (১৩) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে যুবকের বিরুদ্ধে। ধর্ষণের শিকার ছাত্রী ওই মাদ্রাসার ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী। স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত যুবককে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।
ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রী সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন, চলতি বছরের শুরু দিকে ৮ম শ্রেণীল ছাত্রীর সাথে ওই কিশোরীকে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। এর সূত্র ধরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করেছে পৌরসভার মগবাজার মাষ্টারপাড়া এলাকার জয়নাল আবেদীন জুনুর ছেলে মোহাম্মদ হোছাইন প্রকাশ বাঘা (২৬)।
জানা গেছে, গতকাল শনিবার দুপুর ২টা। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে অভিযুক্ত মো. হোছাইন ওই ছাত্রীকে কৌশলে বাড়ি থেকে ডেকে এনে মাদ্রাসার পাশে একটি রুমে নিয়ে যায়। রুমের মধ্যে তাদের দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা মাদ্রাসার শিক্ষকদের বিষয়টি খুলে বলেন। পরে মাদ্রাসার শিক্ষক মাওলানা ইলিয়াছ ও জয়নাল আবেদীন তাদের ওই রুমে হাতেনাতে দেখে পেলে। ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রীকে মাদ্রাসায় নিয়ে আসলেও অভিযুক্ত ধর্ষণ যুবক পালিয়ে যায়। মাদ্রাসার শিক্ষকরা ছাত্রীকে অভিভাবককে ডেকে আনেন। মাদ্রাসায় শিক্ষকদের রুমে দফায় দফায় সমঝোতার বৈঠক হয়।
ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রী সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন, শনিবার (৪মে) দুপুরে তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একটি রুমে নিয়ে যায়। তাকে সেখানে ধর্ষণ করে অভিযুক্ত মো. হোছাইন। স্থানীয়রা ঘটনাটি দেখে ফেললে মাদ্রাসার শিক্ষকরা তাকে ডেকে এনে বসিয়ে রাখে। তাঁর পরিবারকে খবর দেন।
চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাবিবুর রহমান বলেন, ‘পৌরশহরে মগবাজার এলাকায় মাদ্রাসা ছাত্রীর মধ্যে এক যুবকের প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। স্থানীয়দের কাছ থেকে একটি ঘটনা শুনেছি। ওই ছাত্রীর পরিবারের পক্ষ থেকে এখনো লিখিত অভিযোগ দেননি। ভোক্তভোগী এজাহার দায়ের করলে তদন্ত পূর্বক মামলা নেওয়া হবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*