প্রশাসনের অনুমতি না নিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকার বালু বানিজ্যের ভিশন কচুয়ায় অবৈধ ভাবে ড্রেজারে বালু বিক্রির চেষ্টা ॥ এলাকাবাসীর বাঁধা

প্রশাসনের অনুমতি না নিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকার বালু বানিজ্যের ভিশন কচুয়ায় অবৈধ ভাবে ড্রেজারে বালু বিক্রির চেষ্টা ॥ এলাকাবাসীর বাঁধা
বিল্লাল মাসুম,কচুয়া (চাঁদপুর) প্রতিনিধি ॥ চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার নন্দনপুর-মালচোয়া গ্রামে মাঝামাঝি বিলে উপজেলা প্রশাসনের অনুমতি না নিয়ে অবৈধ ড্রেজার মেশিন বসিয়ে রমরমা বালু বিক্রির চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্থানীয় বিএনপি নামধারী দলবদলকারী নেতা আমিনুল ইসলাম মাষ্টারের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ তুলেছেন এলাকাবাসী।
গতকাল রবিবার সরেজমিনে স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, নন্দনপুর গ্রামের দক্ষিন পাশের বিলে আমিনুল ইসলাম মাষ্টার সম্প্রতি তার মালিকানাধীন ৭২ শতাংশ জমিতে পুকুর খননের জন্য চার পাড়ে বেড়িবাঁধে এবং ওই জায়গার বালু ১৫লক্ষ টাকার চুক্তিবদ্ধ করে পাশ্ববর্তী কাদিরখিল গ্রামের মৃত ইব্রাহিমের ছেলে মফিজুল ইসলাম,মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে রাসেল ও একই গ্রামের আলকাছের ছেলে জালাল মিয়ার কাছে বিক্রির চুক্তি করে। বর্তমানে দায়িত্বপ্রাপ্ত ড্রেজার মালিক সেলিম মিয়া ওই স্থানে বালু ভরাটের জন্য ড্রেজার মেশিন বসানোর প্রস্তুতি ও পাইপ টানার কাজ সম্পন্ন করেছেন।
ওই জমি সংলগ্ন ও আশপাশে জমির মালিকদার মজিবুল হক রেনু , রাসেল কবির, লিয়াকত হোসেন, অজিউল্যাহ ও ডা: আব্দুল মতিন ওয়ারিশ আবুল কাশেম সেলিমসহ আরো অনেকে জানান, আমিনুল ইসলাম মাষ্টার প্রশাসনের অনুমতি না নিয়ে তার জমিতে বালি বিক্রির অসৎ উদ্দেশ্যে পুকুর খননের পাঁয়তারা করছেন। ওই স্থানে পুকুর খনন করা হলে আশপাশের জমি ভেঙ্গে তলিয়ে যাওয়ার আশঙ্কা করেছেন জমির মালিকরা।
এ ব্যাপারে সরেজমিনে গিয়ে আমিনুল ইসলাম মাষ্টারের বক্তব্য জানতে চাইলে সাংবাদিক পরিচয় জেনে তিনি ঘটনাস্থল থেকে দ্রুত ত্যাগ করেন।
এব্যাপারে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) রুমন দে জানান, আবাদী জমিতে কোনো ভাবেই অনুমতি ছাড়া বালি উত্তোলন করা যাবে না। এ ক্ষেত্রে কেউ বালি উত্তোলনের চেষ্টা করলে অভিযোগ পেলে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।
অভিযুক্ত বালু উত্তোলন চেষ্টাকারী আমিনুল ইসলাম মাষ্টার মুঠোফোনে বালু বিক্রির বিষয়ে অস্বীকার করে বলেন, আমার জায়গা পুকুর খননের প্রক্রিয়া চলছে তবে প্রশাসনের কোনো ধরনের অনুমতি নেওয়া হয়নি।
এদিকে নন্দনপুর -মালচোয়া গ্রামের মাঝে অবৈধ ভাবে বালি বিক্রি চেষ্টা ও অবৈধ ড্রেজার মেশিন অবলিম্বে বন্ধের দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসী।

ছবি: কচুয়া নন্দনপুর বিলে এভাবে পুকুর তৈরির চেষ্টা করছেন আমিনুল ইসলাম মাষ্টার। সাংবাদিক পরিচয় জেনে ছাতা হাতে ঘটনাস্থল ত্যাগ করছেন আমিনুল ইসলাম মাষ্টার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*