ফটিকছড়িতে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন হচ্ছে

ফটিকছড়িতে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন হচ্ছে

এম আর আই রফিক,ফটিকছড়ি :: দীর্ঘ এক মাস সিয়াম সাধনার পর অত্যান্ত আনন্দ খুশির মধ্যে দিয়ে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন হচ্ছে। উপজেলাবাসী ঝড় বৃষ্টির মাঝেও মুসলিম সমাজের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর উদযাপন করছে আনন্দ উৎসবে । বুধবার উপজেলার বিভিন্ন ঈদগাহে ঈদের নামাজ সকাল ৮ থেকে অনুষ্ঠিত হয়। উপমহাদেশের অন্যতম আধ্যাত্বিক কেন্দ্র মাইজভাণ্ডার দরবার শরীফে ঈদের প্রথম জামাত সকাল ৮.৩০ মিনিটে মাইজভাণ্ডার দরবার শরীফ শাহী জামে মসজিদে এবংদ্বিতীয় জামাত দরবারে আওলাদে পাকদের সম্মিলিত উদ্যেগে মাইজভাণ্ডার শরীফ শাহী মাঠে সকাল ৯.৩০ মিনিটে অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত ঈদের জামাতে দরবারে পাকের আওলাদগণ ছাড়াও দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে হাজার হাজার আশেক ভক্তবৃন্দ উপস্থিত হয়। নামাজ শেষে সালাম,কোলাকুলির মাধ্যমে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন একে অপরের সাথে। সারা ফটিকছড়ি জুড়ে চলছে পবিত্র ঈদের আমেজ। প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নিচ্ছেন একে অপরে। সাম্যের বন্ধনে আবদ্ধ হয় অন্য ধর্মবলম্বীরাও মুসিল বন্ধু বান্ধব,পাড়া প্রতিবেশির সাথে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করছেন। ঈদ উপলক্ষে প্রায় সব মুসলিম পরিবারেই হয়েছে কেনাকাটা। সামর্থ্য অনুযায়ী স্বজনদের জন্য নতুন পোশাক কেনার পাশাপাশি ঘরে ঘরে আয়োজন হয়ছে রকমারি খাবারের। উপজেলা অন্যরকম দৃশ্য পরিলক্ষিত হচ্ছে। একে অপরে পাড়া প্রতিবেশির ঘরে,আত্মীয় স্বজনের বাড়িতে বেড়াতে যাচ্ছেন। এদিকে রাজনৈতিত নেতৃবৃন্দসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ সর্বস্তরের জনগনের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করছেন। উপজেলা প্রশাসনের উদ্যগেও বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে বলে জানা গেছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সায়েদুল আরেফিন ঈদের নামাজ শেষে আগতদের সাথে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।এবং উপজেলাবাসীর প্রতি শুভেচ্ছে জ্ঞাপন করেন। ফটিকছড়ির সাংসদ সদস্য আলহাজ্ব সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারী দেশের বাইরে রয়েছেন বলে জানা গেছে। তবে তিনি ফটিকছড়িবাসীর প্রতি ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। এবং নেতা কর্মীদের জন্য ঈদ উপহারও পাঠিয়েছেন বলে জানা গেছে। ফটিকছড়ি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এইচ এম আবু তৈয়ব জাপতনগর ইউনিয়নের নিজ এলাকাস্থ ঈদগাহে নামাজ শেষে এলাকাবাসী ও নেতা কর্মীদের সাথে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*