ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে রামগড়ে যুবকের আত্মহত্যার চেষ্টা

ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে রামগড়ে যুবকের আত্মহত্যার চেষ্টা

রামগড়(খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি: ফেসবুকে ভাড়াকৃত রেস্তোরার জামানতের টাকা মালিক পক্ষ থেকে না পাওয়া, এর প্রতিকার চেয়ে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ও জনপ্রতিনিধিদের কাছে বিচার না পাওয়ার কথা জানিয়ে একে একে চারটি স্ট্যাটাস দিয়ে পৃথিবীকে চির বিদায় জানিয়ে বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালান রামগড় চৌধুরীপাড়ার বাসিন্ধা নির্বাচন কর্মকর্তা মাঈনুল হকের ছেলে আমির সোহেল শাকিল (২৮)।

বৃহস্পতিবার (২০ জুন) সকাল ১১টায় তৈছালাপাড়ায় একটি ক্যান্টিনে বসে ফেসবুক আইডি থেকে শেষ বিদায়, চলে গেলাম লিখা স্ট্যাটাস দিয়ে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়, সঙ্গে সঙ্গে লোকজন রামগড় হাসপাতালে নিয়ে আসে। কর্তব্যরত চিকিৎসক জানিয়েছেন, রোগীর অবস্থা শঙ্কামুক্ত। ৭২ ঘন্টার পর পুরোপুরিভাবে জানা যাবে শাকিলের শারীরিক অবস্থা।


তার পরিবার, বন্ধু ও ফেসবুকের লিখা থেকে জানা যায়, রামগড় বাজারে জনৈক কাজী সাহেদ থেকে একটি দোকানঘর ভাড়া নিয়ে হোটেল ব্যবসা করে শাকিল। মালিকের সাথে ঘরের চুক্তির বিষয়াদি নিয়ে দ্বন্দ্ব দেখা দিলে ঘরটি ছেড়ে দেয় শাকিল। কিন্তু গত ১০ মাসে জামানতের ছয় লাখ পঞ্চাশ হাজার টাকা দিতে মালিকপক্ষ টালবাহানা করলে এর বিচার চেয়ে স্থানীয় এমপি, রামগড় থানা, রামগড় ৪৩ বিজিবি ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও জামানতের টাকা পেতে ব্যর্থ হয়ে গত দুই মাসে ফেসবুকে সকলের দৃষ্টি আকর্ষন করে ৪টি স্ট্যাটাস দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়। স্ট্যাটাসে তার পিতাকেও মালিকপক্ষ দ্বারা অপমানিত হওয়ার কথা জানিয়েছেন শাকিল। সে আরো লিখেছে এলাকার প্রভাবশালি বলে কেউ বিচার করতে রাজি হয়নি।

শাকিলের আত্মহত্যা চেষ্টার বিষয়টি জানাজানি হলে শতশত লোকজন হাসপাতালে ভীড় করে শাকিলের উপর করা অন্যায়ের বিচার জানিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

রামগড় থানার অফিসার ইনচার্জ তারেক মো: আব্দুল হান্নান বিষপানের কথা স্বীকার করে জানান, তদন্ত করে আইনানুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*