চুয়েট ভিসি’র সাথে জাপান দূতাবাসের প্রতিনিধি দলের সাক্ষাৎ ও মতবিনিময়

চুয়েট ভিসি’র সাথে জাপান দূতাবাসের প্রতিনিধি দলের সাক্ষাৎ ও মতবিনিময়

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ  চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট)-এর মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম মহোদয়ের সাথে বাংলাদেশে নিয়োজিত জাপান দূতাবাসের একটি প্রতিনিধি দল সৌজন্য সাক্ষাৎ ও মতবিনিময় করেছেন। ৭ আগস্ট (বুধবার), ২০১৯ খ্রিঃ দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর কার্যালয়ে উক্ত সাক্ষাৎ ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিনিধি দলের সদস্যরা হলেন- জাপান দূতাবাসের মিনিস্টার মিস্টার তাকেশি ইতো ( Takeshi Ito ) এবং দূতাবাসের জনসংযোগ বিভাগের প্রধান মিস মাই তোমোরি ( Mai Tomori )। এ সময় চুয়েটে কর্মরত জাপানের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের এলামনাই পুরকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আব্দুর রহমান ভূঁইয়া, যন্ত্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. সজল চন্দ্র বনিক, কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মশিউল হক, ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. কাজী দেলোয়ার হোসেন, যন্ত্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. জামাল উদ্দিন আহম্মদ, পুরকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফুল হক, ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আহসান উল্লাহ, পুরকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. জি.এম. সাদিকুল ইসলাম, পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. মহি উদ্দিন, রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. এম.কে. মোহাম্মদ জিয়াউল হায়দার, ইলেকট্রনিক্স এন্ড টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. আজাদ হোসেন, পুরকৌশল বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মো. আফতাবুর রহমান, ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আসাদ রহমান ও সহকারী অধ্যাপক ড. নুসরাত জাহান, স্থাপত্য বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জনাব সজল চৌধুরী ও সহকারী অধ্যাপক জনাবা তাজিয়া রহমান, মানবিক বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জনাবা ফরহাত জামিলা এবং স্থাপত্য বিভাগের প্রভাষক জনাব বিপ্লব কান্তি বিশ্বাস প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, জাপান থেকে উচ্চশিক্ষা ও গবেষণা সম্পন্ন করে প্রায় ২১ জন শিক্ষক বর্তমানে চুয়েটে বিভিন্ন বিভাগে শিক্ষক হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

মতবিনিময়কালে জাপান দূতাবাসের প্রতিনিধিরা চুয়েটের সাথে উচ্চশিক্ষা ও গবেষণা ক্ষেত্রে দ্বি-পাক্ষিক সহযোগিতা ও সম্পর্কোন্নয়নে কাজ করার আগ্রহ পোষণ করেন। এ সময় জাপান এলামনাইদের জাপান হতে অর্জিত জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে চুয়েট তথা বাংলাদেশের সার্বিক উন্নয়নে অবদান রাখার কথা স্মরণ করিয়ে দেন। একইসাথে জাপান সরকার বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে জাপান আরো বেশি অবদান রাখতে চান বলেও তাঁরা জানান। চুয়েট ভিসি এ সময় প্রতিনিধি দলকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, জাপান বাংলাদেশের পরিক্ষীত বন্ধু রাষ্ট্র। আগামি দিনগুলোতে জাপান-বাংলাদেশের পারস্পরিক সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*