টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধের যুবলীগ নেতা হত্যা মামলার দু’আসামী নিহত : ২ টি আগ্নেয়াস্ত্র, ২১ টি কার্তুজ ও খোসা উদ্ধার

টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধের যুবলীগ নেতা হত্যা মামলার দু’আসামী নিহত : ২ টি আগ্নেয়াস্ত্র, ২১ টি কার্তুজ ও খোসা উদ্ধার

নাছির উদ্দীন রাজ, টেকনাফ( কক্সবাজার) প্রতিনিধি : কক্সবাজার টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধের যুবলীগ নেতা হত্যা মামলার দু’আসামী চিকিৎসাধীন অবস্থায় নিহত হয়েছে। নিহত দু’জন হচ্চে, হ্নীলা জাদিমুড়া এলাকার রোহিঙ্গা ক্যম্পের বাসিন্দা ও মিয়ামারেরর আকিয়াব জেলার মংডু এলাকার সবির অাহামমদের পুত্র মোঃশাহ ও রাসিদং, সিলখালী এলাকার আবদুল আজিজের পুত্র শুক্কুর।
এসময় তিন পুলিশ সদস্য আহত ও ঘটনাস্থলে তল্লাশী করে ২ (দুই) টি এলজি (আগ্নেয়াস্ত্র), ৯টি শর্টগানের তাজা কার্তুজ ও ১২ (বার) রাউন্ড কার্তুজের খোসা পাওয়া যায়। অাসামিদের ছোরা গুলিতে আহত পুলিশ সদস্যরা হচ্ছে , এস আই মনসুর, এ এস অাই জামাল, কং৯৩২১লিটন।
টেকনাফ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ, ( ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ জানায়, ২৪ আগষ্ট জুমাবার টেকনাফ মডেল থানার যুবলীগ নেতা ওমর ফারুক হত্যা মামলা নং- ৫৯ (তারিখ- ২৩/০৮/২০১৯খ্রিঃ) এর তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই/(নিঃ) রাশেল অাহামমদ মামলার এজাহার নামীয় পলাতক আসামীরা জাদিমুড়া পাহাড়ের পাদদেশে অবস্থান করছে সংবাদের ভিওিতে রাত অনুমান দেড় ঘটিকার দিকে আসামীদের আটক করতে অভিযান চালায়। অাসামিরা পুলিশের উপস্থিত টের পেয়ে এলোপাতারি গুলি করিতে থাকে। এসময় পুলিশ জীবন ও সরকারি মালামাল রক্ষার্থে ৪০ রাউন্ড গুলি করে। উভয় পক্ষের গোলাগুলিতে হত্যা মামলার আসামি মিয়ামারেরর আকিয়াব জেলার মংডু এলাকার সবির অাহামমদের পুত্র মোঃশাহ ও রাসিদং, সিলখালী এলাকার আবদুল আজিজের পুত্র শুক্কুরকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে। পরবর্তীতে গুরুতর আহত গুলিবিদ্ধ মোঃশাহ ও শুক্কুরকে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়া গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাহাদের কে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরন করেন। কক্সবাজার সদর হাসপাতালে কর্তব্যরত ডাঃ তাদের মৃত ঘোষনা করেন। উক্ত ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা/মামলা রুজু প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলেও জানা যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*