কাতারে নিরক্ষরতার হার ১.৫ ভাগেরও কম

কাতারে নিরক্ষরতার হার ১.৫ ভাগেরও কম

মারুফ রানা কাতার থেকেঃ শিক্ষাক্ষেত্রে কাতারের অগ্রগতি অনেক দূর এগিয়েছে। এ ব্যাপারে আন্তর্জাতিক লক্ষ্যমাত্রা বাস্তবায়ন করেছে কাতার। বর্তমানে কাতারে নিরক্ষরতার হার শতকরা দেড় ভাগেরও কমে নেমে এসেছে। কাতার কর্তৃপক্ষ শিক্ষাক্ষেত্রে যে অসীম সহযোগিতা ও সমর্থন এবং গুরুত্বপূর্ণ দিকনিদের্শনা দিয়ে যাচ্ছে, এর আলোকে তা সম্ভব হয়েছে বলে মনে করছেন কাতারের শিক্ষাসংশ্লিষ্টরা।
কাতার কেবলমাত্র নিজের নাগরিকদের জন্য শিক্ষার সুব্যবস্থা করছে- তা নয়, বরং বিশ্বজুড়ে লাখো শিশুকে শিক্ষার আলোয় আলোকিত করতে নানারকম আন্তর্জাতিক উদ্যোগ ও প্রকল্প বাস্তবায়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। এশিয়া ও আফ্রিকার বিভিন্ন শিক্ষামূলক প্রতিষ্ঠানগুলোকে বিভিন্ন ভাবে সহায়তা করছে কাতার।
কাতারে আন্তর্জাতিক নিরক্ষরতা দূরীকরণ দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক সেমিনারে কাতারের শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিষয়ক কর্মকর্তারা এসব তথ্য তুলে ধরেন। কাতারের শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিষয়ক জাতীয় কমিটি এই সেমিনারের আয়োজন করে। নিরক্ষরতা দূরীকরণ ও বহুভাষা শিক্ষা শীর্ষক এই সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন কমিটির মহাসচিব ড. হামদা হাসান সুলাইতি এবং উপদেষ্টা ড. যাবইয়া সুলাইতিসহ অন্য কর্মকর্তারা।
প্রতি সেপ্টেম্বর মাসের আট তারিখ কাতারে আন্তর্জাতিক নিরক্ষরতা দূরীকরণ দিবস পালিত হয়ে থাকে। বিশ্বজুড়ে নিরক্ষরতা দূরীকরণে যেসব কার্যক্রম পালিত হচ্ছে, সেগুলোকে সমর্থন ও সহযোগিতা নিয়ে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া এই দিবস পালনের অন্যতম উদ্দেশ্য। পৃথিবীর অনুন্নত দেশগুলোতে নিরক্ষরতা এখনো অনেক বড় সমস্যা হিসেবে রয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেন কাতারি কর্মকর্তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*