ডামুড্যায় আ.লীগ নেতার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ছাত্রলীগের হামলা

ডামুড্যায় আ.লীগ নেতার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ছাত্রলীগের হামলা
শরীয়তপুর প্রতিনিধি: শরীয়তপুরের ডামুড্যা উপজেলার কনেশ্বর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আব্দুস ছালাম সিকদারের বাড়ি-ঘর ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা হামলা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে মামলা প্রস্তুতি চলছে।
আব্দুস ছালাম সিকদার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শরীয়তপুর-৩ আসনের এমপি নাহিম রাজ্জাকের সঙ্গে জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ছাবেদুর রহমান খোকা সিকদার ও একই আসনের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি বাহাদুর বেপারীর সঙ্গে রাজনৈতিক আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় বিরোধ চলছে। আর খোকা সিকদার ও বাহাদুর বেপারীর গ্রুপের সমর্থক কনেশ্বর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আব্দুস ছালাম সিকদারকে এমপি নাহিমের গ্রুপের সমর্থকরা প্রায়ই হুমকি-ধমকি দিয়ে আসছিল। তারই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে এমপি নাহিম সমর্থক উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রুবেল মাদবর ও সাধারন সম্পাদক মন্টি মাঝি এবং ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক নিলয় হাওলাদার সহ অর্ধশত নেতাকর্মী ছালাম সিকদারের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান (স-মিল) ও বাড়ি-ঘরে হামলা সহ পরিবারের লোকজনকে গালিগালাজ করে। এসময় হামলাকারীরা তার ব্যবসায়িক মালামাল ও আসবাবপত্র ভাঙচুর করে এবং ক্যাশে থাকা ৭৩ হাজার টাকা নিয়ে যায়। পরে স্থানীয়দের প্রতিরোধে তারা স্থান ত্যাগ করতে বাধ্য হয়। এ ব্যাপারে মামলা প্রস্তুতি চলছে। এদিকে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।
এ ব্যাপারে কনেশ্বর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আব্দুস ছালাম সিকদার বলেন, আমি খোকা সিকদার-বাহাদুর বেপারীর সমর্থক হওয়ায় স্থানীয় এমপি নাহিমের গ্রুপের লোকজন আমাকে প্রায়ই জীবননাশের হুমকি দিচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় এ হামলা। আমি এর সুষ্ঠ বিচার চাই।
এ ব্যাপারে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রুবেল মাদবরের বক্তব্যের জন্য বারবার চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি।
এ ব্যাপার ডামুড্যা থানার ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ছাত্রলীগের ছেলে-পেলেরা তাকে ধাওয়া দিয়েছে। হামলা বা ভাঙচুর হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*