নিখোঁজের ৩ দিন পর বগুড়া শেরপুরে অটো চালকের লাশ উদ্ধার

নিখোঁজের ৩ দিন পর বগুড়া শেরপুরে অটো চালকের লাশ উদ্ধার
(বগুড়া প্রতিনিধি : বগুড়ার শেরপুরে নিখোঁজের তিন দিন পর ব্যাটারী চালিত অটো চালকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। দুর্গন্ধের সুত্রধরে এলাকাবাসী একটি পুকুরে লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয় শেরপুর থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের লোকজন গিয়ে অর্ধগলিত লাশটি উদ্ধার করে নিয়ে আসে।
গত ২৫ আগষ্ট শনিবার রাত ৯টায় অটো চালাতে গিয়ে ছোনকা এলাকা হতে নিখোঁজ হয় রফিকুল ইসলাম। পরবর্তীতে পরিবারের লোকজন ও আত্মীয়স্বজন অনেক খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে ওই রাতেই শেরপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করে। রফিকুল ইসলাম ভবানীপুর ইউনিয়নের শেখর গ্রামের মকবুল হোসেনের ছেলে বলে জানা গেছে।
এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, ২৭ আগষ্ট সোমবার সকাল ১১টার দিকে মির্জাপুর-রানীরহাট রোডে নির্মানাধীন আলিফ ফিড মিলের একটি পুকুর পাড়ে প্রচন্ড গন্ধ ছড়িয়ে পড়লে লোকজন সেখানে গিয়ে পুকুরের মধ্যে মৃতদেহ দেখতে পায়। পরে তারা বিষয়টি শেরপুর থানা পুলিশ কে খবর দিলে ওসি হুমায়ুর কবিরের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের লোকজন গিয়ে অটো চালকের অর্ধগলিত লাশটি উদ্ধার করে নিয়ে আসে।
ধারনা করা হচ্ছে দুর্বৃত্তরা ব্যাটারী চালিত অটোরিক্সাটি ছিনতাই করে নিয়ে যাওয়ার সময় রফিকুল ইসলামকে গলাকেটে হত্যার পর নির্জন এলাকার ওই পুকুরে ফেলে রেখে গেছে।
এ ব্যাপারে শেরপুর থানার ওসি হুমায়ুন কবির জানান, নিখোঁজের পর পুলিশ তদন্ত অব্যাহত রেখেছিল। এরই মধ্যে এলাকাবাসির খবরে লাশটি উদ্ধার করা হলে রফিকুলের আত্মীয় স্বজন লাশটি শনাক্ত করেছে। পোষ্ট মর্টেমের জন্য লাশটি মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। হত্যা মামলা দায়েরের পর প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের পাশাপাশি খুব দ্রুত হত্যাকারীদের আইনের আওতায় আনা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*