বিশ্বে শোষিত মানুষের পক্ষে কথা বলতে বঙ্গবন্ধুর মতো নেতা প্রয়োজন

চন্দ্রঘোনায় আ’লীগের শোক দিবসের আলোচনা সভায় সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার

বিশ্বে শোষিত মানুষের পক্ষে কথা বলতে বঙ্গবন্ধুর মতো নেতা প্রয়োজন

ঝুলন দত্ত, কাপ্তাই। বঙ্গবন্ধুকে ১৫ আগস্ট হত্যা করার মধ্য দিয়ে যারা মনে করেছিল এদেশে আওয়ামীলীগ আর ঘুরে দাঁড়াতে পারবেন না। তাদের চিন্তাধারা ভুল প্রমাণিত করে আওয়ামীলীগ আজ বিশ্বে বাংলাদেশকে উন্নয়নশীল রাষ্ট্রে উন্নিত করেছে। বিএনপি কোটা, নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনসহ বিভিন্নভাবে গোলাপানিতে মাছ শিকার করার চেষ্ঠা করেছিল। কিন্তু তাদের ষড়যন্ত্র বুঝতে পেরে এদেশের জনগণ তা রুখে দিয়েছে। তারা বলেন আওয়ামীলীগ ধর্মবিরোধী সংগঠন। অথচ জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু বিশ্ব ইজতেমা, ইসলামী ফাউন্ডেশনসহ বিভিন্ন ধর্মীয় সংগঠন প্রতিষ্ঠা করে এদেশে ইসলাম কায়েম করেছেন। সব ধর্মের মানুষ যাতে সাম্প্রদায়িকতা মুক্ত থেকে এদেশে বসবাস করার সুযোগ পান তিনি সেভাবে দেশ চালিয়েছেন। বিশ্বের শোষিত মানুষের পক্ষে কথা বলতে বর্তমান যুগে বঙ্গবন্ধুর মতো নেতার বড়ই প্রয়োজন রয়েছে। ১৯৭৪ সালে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রী হেনরী কিসিঞ্জার বলেছিলেন, ‘বাংলাদেশ তলাবিহীন ঝুড়ির দেশ। কিন্তু বাংলাদেশ যেভাবে ধাবমান গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে তা দেখে সম্প্রতি সাবেক রাষ্ট্রদূত ড্যান মজিনা বলেছেন, বাংলাদেশ উন্নয়নে উপচে পড়া ঝুড়ির দেশ। মঙ্গলবার (২৮ আগস্ট) রাঙ্গুনিয়ার চন্দ্রঘোনা-কদমতলী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী, আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা দীপংকর তালুকদার একথা বলেন। চন্দ্রঘোনা লিচুবাগান বাস স্টেশন চত্বরে আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল মোনাফ সিকদার। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক জালাল আহমদের সঞ্চালনায় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম উত্তরজেলা আওয়ামীলীগ নেতা স্বজন কুমার তালুকদার, মেয়র শাহজাহান সিকদার, উপজেলা চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আলী শাহ, মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম চিশতি, বেদারুল আলম চৌধুরী বেদার, নজরুল ইসলাম তালুকদার, জেলা কৃষকলীগ সাধারন সম্পাদক শফিকুল ইসলাম, কাপ্তাই উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি অংসুচাইন চৌধুরী, রাঙ্গুনিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার শামসুল আলম তালুকদার, আওয়ামীলীগ নেতা আকতার হোসেন খাঁন, আবু তাহের, মো. হারুন সওদাগর, মো. ফোরকান, কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা চেয়ারম্যান শেখ ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী, শেখর বিশ্বাস, ইলিয়াছ কাঞ্চন চৌধুরী, আলী আজগর, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা নাছির উদ্দিন রিয়াজ, আবু মনসুর, দেলোয়ার হোসেন, তাঁতীলীগের মোরশেদ তালুকদার, প্রজন্মলীগের সুপায়ন সুশীল, ছাত্রলীগ নেতা শিমুল গুপ্ত, এ আর লিমন, এয়াকুব আলী প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*