বৃহত্তর যশোর উন্নয়ন ও বিভাগ বাস্তবায়ন পরিষদ এর ১১ দফা দাবিতে মানববন্ধন সংবাদ সম্মেলন

বৃহত্তর যশোর উন্নয়ন ও বিভাগ বাস্তবায়ন পরিষদ এর ১১ দফা দাবিতে মানববন্ধন সংবাদ সম্মেলন
যশোর জেলা সংবাদদাতাঃ যশোর বিমানবন্দরকে আন্তর্জাতিক মানে উন্নীতকরণসহ ১১ দফা দাবিতে মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন হয়েছে। যশোর প্রেসক্লাবের সামনে শনিবার সকাল ১০টা থেকে ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন করেছে বৃহত্তর যশোর উন্নয়ন ও বিভাগ বাস্তবায়ন পরিষদ। পরে সাড়ে ১১ টায় সংবাদ সম্মেলন করে আয়োজক কমিটি। এসব কর্মসূচিতে সংগঠনের বাইরেও বৃহত্তর যশোরের বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ অংশ নেন ও বক্তব্য রেখে সরকারকে দাবি বাস্তবায়নে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে অনুরোধ করেন।১১ দফা দাবির মধ্যে রয়েছে- যশোর বিমান বন্দর আন্তর্জাতিক মানে উন্নীতকরণ। নড়াইল, মাগুরা, ঝিনাইদহ ও যশোরে ৪টি অর্থনৈতিক জোন তৈরি। যশোরকে পৃথক বিভাগ ও সিটি কর্পোরেশন ঘোষণা ও বাস্তবায়ন করতে হবে। পূর্ণাঙ্গ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়, কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় ও মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, লালন ও মধুসূদনের নামে সাংস্কৃতিক বিশ্ববিদ্যালয়, মহিলা ক্যাডেট কলেজ, নড়াইল ও ঝিনাইদহে মেডিকেল কলেজ স্থাপন। বেনাপোল স্থলবন্দর আধুনিকায়ন করতে হবে। দৌলদিয়া ও পাটুরিয়া ফেরিঘাটে পদ্মা টানেল অথবা পদ্মাসেতু নির্মাণ এবং দৌলদিয়া-যশোর- বেনাপোল মহাসড়ক চারলেনে উন্নীতকরণ। চার জেলায় আন্তঃজেলা রেল যোগাযোগ ও ঢাকা-খুলনা চলমান রুটে নতুন একটি রেল চালু এবং খুলনা থেকে কলকাতাগামী ট্রেন যশোর রেলস্টেশনে স্টপেজ দিতে হবে।বৃহত্তর যশোরের চারটি জেলায় গ্যাস সরবরাহ দিতে হবে। বৃহত্তর যশোরে আর্ন্তজাতিকমানের ক্রিকেট স্টেডিয়াম নির্মাণ করতে হবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের শাখা স্থাপন করতে হবে। পর্যটন কর্পোরেশনের মাধ্যমে একটি পাঁচ তারকা হোটেল নির্মাণ করতে হবে।যশোর জেলা মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক তন্দ্রা ভট্টাচার্য্য বলেন, যশোরের মাটি ব্যবহার করে খুলনায় গ্যাস নেওয়া হয়েছে। অথচ স্বাধীনতার প্রথম শত্রুমুক্ত এ জেলার মানুষ এর সুবিধা পায়নি। তাদের শুধু চেয়ে চেয়ে দেখতে হয়েছে। একইভাবে খুলনা থেকে ছেড়ে আসা ট্রেন যশোরের বুক দিয়ে কোলকাতা যাচ্ছে। যশোরে স্টোপেজ রাখা হয়নি। তাই এ জেলার মানুষ কোলকাতায় আসা-যাওয়া ট্রেন দেখতে পেলেও তাতে চড়তে পারছে না। এভাবে বিভিন্ন দিক দিয়ে বৃহত্তর যশোরবাসী বঞ্চিত হচ্ছে। তিনি যশোর বিমানবন্দরকে আন্তর্জাতিক মানের করার দাবি জানিয়ে এ জেলার জনপ্রতিনিধিদেরকে প্রধানমন্ত্রীর সাথে কথা বলার আহবান জানান।যশোর জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির জেলা সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান ভিটু বলেন, ভৌগলিক দিক দিয়ে যশোর খুবই গুরুত্বপূর্ণ জেলা। কিন্তু যশোর বারবার উন্নয়ন বঞ্চিত। আমরা সরকারের কাছে দাবি জানাই যশোর বিমানবন্দরকে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে উন্নীত করতে হবে।যশোর সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাবেক সভাপতি হারুণ-আর-রশিদ বলেন, পুরনো জেলা হিসেবে বিভিন্ন দিক থেকে যশোর বঞ্চিত রয়েছে। এখানে সিটি করপোরেশ করার প্রতিশ্রুতি দেওয়া থাকলেও তা বাস্তবায়ন হয়নি। তিনি এ জেলার গুরুত্ব তুলে ধরে যশোর বিমানবন্দরকে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে উন্নীত করতে প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টি কামনা করেন।এছাড়া বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক ফখরে আলম, বৃহত্তর যশোর উন্নয়ন ও বিভাগ বাস্তবায়ন পরিষদের সভাপতি অ্যাডভোকেট এনামুল হক, সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান খান, জেলা সদস্য মাসুদুর রহমানসহ বিভিন্ন সংগঠনের প্রতিনিধিরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*