লালমনিরহাটে বন্দুক যুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী গুলিবিদ্ধ, আহত দুই পুলিশ সদস্য 

লালমনিরহাটে বন্দুক যুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী গুলিবিদ্ধ, আহত দুই পুলিশ সদস্য 
 এস এম আলতাফ হোসাইন, সুমন  লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলায় ৫ কেজি গোঁজাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করে পুলিশ। আটক মাদক ব্যবসায়ীর তথ্যমতে পুনরায় মাদক উদ্ধারে গেলে পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধে সিরাজুল ইসলাম নামের একজন মাদক ব্যবসায়ীর দুই পা গুলিবিদ্ধ হয়। এসময় দুই পুলিশ সদস্যও আহত হন এবং আরও ৬ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়।
বুধবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১ টা ৪৫ মিনিটে উপজেলার নওদাবাস এলাকায় অবস্থিত শালবন এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। এর আগে ভোর সাড়ে ৪টার দিকে একই উপজেলার গেন্দুকুড়ী এলাকা থেকে দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করে পুলিশ।
আটককৃতরা হলেন ঐ এলাকার মৃত্যু জহর উদ্দিনের ছেলে সিরাজুল ইসলাম অরফে আলু সিরাজ (৪৫) এবং  আতি শেখের ছেলে রাশেদুল ইসলাম (২৮)।  আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন এস,আই আবু বকর সিদ্দিক ও কনস্টেবল এরশাদ হোসেন।
থানা পুলিশ সুত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে হাতীবান্ধা থানা পুলিশের চৌকস পুলিশ অফিসার এস,আই নুর আলম সরকারে নেতৃত্বে পুলিশের একটিদল ভোর সাড়ে ৪টার দিকে উপজেলার গেন্দুকুড়ী এলাকার মৃত্যু ছকির মাহমুদের ছেলে বছর উদ্দিনের বসত বাড়ির পশ্চিমে অভিযান চালিয়ে ৫ কেজি গাঁজাসহ সিরাজুল ইসলাম ও রাশেদুল ইসলামকে আটক করে।
থানায় এনে দুই মাদক ব্যবসায়ীকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সিরাজুল ইসলামের কাছে আরও মাদক আছে বলে সে পুলিশকে জানালে। আজ দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উমর ফারুকসহ পুলিশের একটি দল সিরাজুল ইসলামকে সাথে নিয়ে পুনরায় মাদক উদ্ধারের জন্য নওদাবাস এলাকায় অবস্থিত শালবন এলাকায় গেলে সিরাজুলের লোকজন পুলিশের উপর অতর্কিত হামলা চালায় ।
এসময় পুলিশের সাথে মাদক ব্যবসায়ীদের বন্দুকযুদ্ধ বাধলে  সিরাজুল ইসলামের দুই পা গুলিবিদ্ধ হয় এবং মাদক ব্যবসায়ীর আক্রমণে এস,আই আবু বকর সিদ্দিক ও কনস্টেবল এরশাদ গুরুতর আহত হয়। এসময় সেখান থেকে আরও ৬ কেজি গাঁজা উদ্ধার করে পুলিশ।
পরে আহত দুই পুশ সদস্যকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেকে  প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয় এবংং গুলিবিদ্ধ সিরাজুল ইসলামকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
এবিষয়ে কথা হলে হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) উমর ফারুক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আটককৃত মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইনে থানা একটি মামলা হয়েছে। পরে তাদের আদালতে মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*