সিরিকোট দরবারের মাধ্যমে এদেশে হোসাইনী আদর্শ বিস্তৃত হয়েছে

সিরিকোট দরবারের মাধ্যমে এদেশে হোসাইনী আদর্শ বিস্তৃত হয়েছে; রাউজানে গাউসিয়া কমিটির সেমিনারে বক্তারা

শাহাদাত হোসেন , রাউজান ;; অন্যায়ের বিরুদ্ধে ইসলামের প্রকৃত জয় হয়েছিল ঐতিহাসিক কারবালার ময়দানে। হযরত ইমাম হোসাইন (রাঃ) সেদিন নিজের তাজা রক্ত বিসর্জন দিয়ে পাপিষ্ঠ এজিদের বিরুদ্ধে জিহাদ করে ইসলামে ত্যাগের যে নির্মল শিক্ষা দিয়েছেন তা আজীবন ইসলামের সঠিক দিশা হিসেবে স্বীকৃত হয়ে আসছে। কারবালার ময়দানে ইসলামের নামধারী যে মুনাফিক চক্রটি ছিল, তাদের উত্তরসূরিরা বর্তমানেও রয়েছে। প্রকৃতপক্ষে তারাই ইসলামের নাম দিয়ে ইসলামের নির্মল আদর্শকে কুঠারাঘাত করে সারাবিশ্বে জঙ্গিবাদী কর্মকাণ্ড পরিচালনা করছে। আর এদেশে ইসলামের সঠিক আদর্শ এবং কারবালার ঈমানী চেতনা ব্যাপকভাবে বিস্তৃত হয়েছে সিরিকোট দরবার শরীফের মাশায়েখ হযরাতে কেরামের মাধ্যমে। এক্ষেত্রে আল্লামা সৈয়্যদ আহমদ শাহ সিরিকোটি (রহঃ) ও আল্লামা তৈয়্যব শাহ (রহঃ) এর সংস্কারমূলক অবদান চিরস্মরণীয় হয়ে আছে। গাউসিয়া কমিটি রাউজান কলেজ শাখার ব্যবস্থাপনায় আজ ২২ সেপ্টেম্বর শনিবার রাউজান উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত “দ্বীন বাচাঁবার হোসাইনী বাতিঘর-সিরিকোট দরবার” শীর্ষক সেমিনারে বক্তারা এসব কথা বলেন। গাউসিয়া কমিটি চট্টগ্রাম উত্তর জেলা শাখার প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আলহাজ্ব আহসান হাবীব চৌধুরী হাসানের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় গাউসিয়া কমিটির চেয়ারম্যান আলহাজ্ব পেয়ার মুহাম্মদ কমিশনার। প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক প্রফেসর ড.আবুল হোসেন। প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন গাউসিয়া কমিটি কেন্দ্রীয় পরিষদের যুগ্ন মহাসচিব আলহাজ্ব এডভোকেট মোসাহেব উদ্দিন বখতেয়ার। বিশেষ আলোচক হিসেবে উপস্থিত সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন এর কেন্দ্রীয় পরিচালক অধ্যাপক ড. মাসুম চৌধুরী ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্ট্যাডিজ বিভাগের প্রভাষক পীরজাদা মাওলানা এস.এম মাসুম বাকী বিল্লাহ। সেমিনারে উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা গাউসিয়া কমিটির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব এডভোকেট জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী। সেমিনারের শুরুতে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন গাউসিয়া কমিটি রাউজান কলেজ শাখার সভাপতি সাইদুল ইসলাম। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক নিয়াজুর রহমান সাবিক ও কাজী মাশুকুল ইসলামের পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রাউজান দারুল ইসলাম ফাজিল মাদরসার আরবি প্রভাষক আল্লামা সিরাজুল ইসলাম সিদ্দিকী, মাওলানা শামসুল আলম হেলালী, রাউজান উপজেলা মসজিদের খতিব মাওলানা এম.এ মতিন, আলহাজ্ব নুরুল আমিন, মাওলানা শওকত হোসেন, মাওলানা সাইফুল ইসলাম নেজামী, রফিকুল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম, জয়নাল আবেদিন, মইনু উদ্দিন, রবিউল হোসেন সুমন, আশেকুল ইসলাম, আরফান চৌধুরী মারুফ, সাজ্জাদ হোসেন, মইনুদ্দিন জামাল চিশতী, মাকসুদুল আলম সুমন, ইকবাল হোসেন, সাবরিয়াত ইসলাম, ওমর ফারুক মনি, গাজী মাসুদ রানা, সাহেদ হোসেন, মনির উদ্দিন, সাইফ আলী, রাকিব চৌধুরী, মোহাম্মদ আরমান, মেহেদি হাসান আরমান, মনির খান ইম্পু, আবদুল্লাহ আল সাকিব, সাহাবুদ্দিন রনি, সাব্বির হোসেন, আরমান উদ্দিন, মোফাচ্ছেল হক, জুলফিকার আলী, রবিউল করিম রবিন, আলী হোসেন জুয়েল, আবু হায়াত শাহীন, তসলিম উদ্দিন সাকিব, সিরাজুল ইসলাম, হাদিদ হোসেন রিয়াদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*