উখিয়ায় ২ কলেজ ছাত্রের উপর হামলার ঘটনায় সড়ক অবরোধ

উখিয়ায় ২ কলেজ ছাত্রের উপর হামলার ঘটনায় সড়ক অবরোধ
উখিয়া(কক্সবাজার)প্রতিনিধি ;; 
উখিয়ায় কলেজে আসার পথে দুই শিক্ষার্থীর ওপর হামলার প্রতিবাদে আজ সোমবার উখিয়া-টেকনাফ (এটিএম জাফর আলম) সড়ক অবরোধ করেছে শিক্ষার্থীরা। একই প্রতিবাদে শিক্ষার্থীরা আজ ক্লাস বর্জন করে। ঘণ্টাব্যাপী অবরোধের কারণে সড়কের দুই পাশে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। পরে উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে দাবী মেনে নেওয়ার আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেন বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীরা।উখিয়া কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি সাইদুল আমিন টিপু বলেন, উখিয়া কলেজের দুই শিক্ষার্থী কলেজে আসার পথে পাবলিক বাসে ধুমপান না করার অনুরোধ করলে ধুমপানকারীরা ক্ষিপ্ত হয়ে দুই শিক্ষার্থীর উপর দফায় দফায় হামলা চালায়।
প্রত্যক্ষদর্শী ও আহতদের ভাষ্যমতে, কলেজ শিক্ষার্থীদের হামলাকারীরা হলো বালুখালী এলাকার আমির হোসেনের ছেলে আবদুর রহিম বাবুল, মৃত আমির হোসেনের ছেলে হেলাল উদ্দিন, বদিউর রহমানের ছেলে সরওয়ার, আবু ছৈয়দের ছেলে লালু, আলী আহমদের ছেলে আলা উদ্দিন, সিরাজ মিয়া ছেলে মুন্না। হামলাকারী সবাই ইয়াবা কারবারে জড়িত বলেও জানিয়েছেন স্থানীয়রা।
হামলার শিকার আহত দুই শিক্ষাথী কফিল উদ্দিন পিতা মো: হোসেন ও রিয়াজ উদ্দিন পিতা- জয়নাল উদ্দিনকে উখিয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
উখিয়া কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইসহাক জানায়, এ হামলার প্রতিবাদে বেলা ১১টার দিকে শত শত শিক্ষার্থী ক্লাস বর্জন করে সড়কে অবস্থান নেন। এ সময় বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীরা সড়কের মাঝখানে আগুন জ্বালিয়ে দেয়। এতে মহাসড়কের উভয় পাশে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়।খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: নিকারুজ্জামান চৌধুরী রবিন, কায়রুজ্জামান
ওসি (তদন্ত) একদল পুলিশ নিয়ে চিকিৎসাধীন আহত শিক্ষার্থীদের দেখে দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে যান। এ সময় তাঁদের কাছে কলেজ অধ্যক্ষ ফজলুল করিমসহ বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীরা হামলায় জড়িতদের গ্রেপ্তার পূর্বক শাস্তির দাবি জানান। শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নেওয়ার আশ্বাস দিলে সড়ক অবরোধ তুলে নেন শিক্ষার্থীরা।উখিয়া থানার ওসি (তদন্ত) মো: খায়রুজ্জামান বলেন, এ ঘটনায় শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে অভিযোগ করার জন্য বলা হয়েছে। কলেজ ছাত্রের উপর হামলাকারীদের আটক করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের কথাও তিনি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*