ফটিকছড়ির নবগঠিত খিরাম ইউনিয়ন : সড়ক যেন চাষের জমি

ফটিকছড়ির নবগঠিত খিরাম ইউনিয়ন : সড়ক যেন চাষের জমি
এম. বেলাল উদ্দীন আকাশ, স্টাফ রিপোর্টার : ফটিকছড়িতে নব গঠিত ইউনিয়নের নাম ২১নং খিরাম ইউনিয়ন পরিষদ৷দুর্গোম এবং অবহেলিত একটি ইউনিয়নের মধ্যে এটি অন্যতম৷বাংলাদেশ সেনাবাহিনীসহ ৮হাজার গ্রামবাসীর একমাত্র যোগাযোগ মাধ্যম এ সড়ক৷ বৃষ্টি পর সড়কটি দেখলেই মনে হয় ধান রোপনের জন্য তৈরীকৃত চাষ দেয়া একটি জমি।
সূত্রে জানা যায়, ৪ মৌজা নিয়ে নবগঠিত ২১নং খিরাম ইউনিয়নের উত্তর খিরাম মৌজায় রয়েছে লামাছড়ি, রিজার্ভ বাজার, বাঘাছড়ি, বেতুয়াছড়ি, মগকাটা, বিলাইছড়ি ও বড়ইতলী সহ ৮টি ছোট-বড় গ্রাম। এখানে প্রায় ৫ হাজার বাঙালী ও ৩হাজার পাহাড়ী বসবাস করছে। এছাড়াও রয়েছে সেনাবাহিনী ক‍্যাম্প ও বনবিভাগের অফিস। উত্তর খিরাম মৌজায় বসবাসরত এলাকাবাসীর যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম খিরাম-বর্মাছড়ি সড়ক। তাছাড়া লক্ষ্মীছড়ি উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ বর্মাছড়ি বাজারের শতশত ব‍্যবসায়ীরা এসড়ক দিয়ে যাতায়াত করেন। কিন্তু সড়কের অবস্থা বর্ণনাতীত খারাপ। সামান্য বৃষ্টি হলেই সড়ক চাষের জমিতে পরিণত হয়। তখন যানবাহন দূরে থাক, মানুষ চলাচল করাও কষ্টসাধ্য হয়ে পড়ে। ফলে হাজার হাজার গ্রামবাসী, ব‍্যবসায়ী, ছাত্র, শিক্ষক পথচারীদের পোহাতে হয় চরম দুর্ভোগ।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে খিরামের বাসিন্দা একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক দীপক ধর জানান জন্ম লগ্ন থেকেই দেখে আসছি আমাদের একমাত্র যোগাযোগের মাধ্যম এ সড়কটির বেহাল এই অবস্থা৷কোন জনপ্রতিনিধিই সড়কটির স্থায়ী সমাধানে এগিয়ে আসেননা৷অথচ ফটিকছড়িসহ সারা দেশেই যখন উন্নয়নের বন্যা বয়ে যাচ্ছে তখন অবহেলিত এ খিরামবাসীর চোখে মুখে বিশাদের চাপা কান্না যেন দেখার কেউ নেই৷
তাই সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের নিকট জরুরি ভিত্তিতে এ সড়ক সংস্কারের দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*