২১ শে আগষ্ট গ্রেনেড হামলার রায়ে নাশকতা বন্ধে সাবেক ছাত্রলীগ পরিষদ ওমরগণি এম,ই,এস বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের সমাবেশ

২১ শে আগষ্ট গ্রেনেড হামলার রায়ে নাশকতা বন্ধে সাবেক ছাত্রলীগ পরিষদ ওমরগণি এম,ই,এস বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের সমাবেশ
প্রেস বিজ্ঞপ্তি ;;  ২১ শে আগষ্ট গ্রেনেড হামলার রায়ের দিনে গতকাল ১০ অক্টোবর বেলা ১১টায় বিএনপি জামাতের সকল ষড়ডন্ত্র নাশকতা বন্ধে ওমরগণি এম,ই,কলেজ প্রাক্তন ছাত্রলীগ পরিষদের এক সমাবেশ ও অবস্থান কর্মসুচী চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এম,আর আজিমের সভাপতিত্বে নগরীর দামপাড়ায় অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অবস্থান কর্মসুচীতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেকমন্ত্রী জহুর আহমদ চৌধুরীর সন্তান, আওয়ামীলীগনেতা হেলাল উদ্দীন চৌধুরী তুফান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক কাউন্সিলর জাবেদ নজরুল, কোতোয়ালী থানা আওয়ামী লীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হাসান মনসুর, নগর যুবলীগের সিনিয়র সদস্য নুরুল আনোয়ার, বাগমনিরাম ওয়ার্ড আওয়ামীলীগনেতা আবদুল মালেক, আওয়ামীলীগনেতা লেলিন পাল, মহানগর যুব মহিলা লীগের যুগ্ম আহ্বায়িকা মুশতারী মোরশেদ স্মৃতি, সদস্য সোনিয়া আজাদ, চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক খোরশেদ আলম জুয়েল, ওমরগণি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের সাবেক আপ্যায়ন সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য মোঃ কফিল উদ্দীন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সহ সম্পাদক আবু সাঈদ সুমন, যুবলীগনেতা আরিফ রশিদ, সাঈদ রহিম, মোঃ সেলিম, এরশাদ হোসেন মনি, চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি মঈনুল হাসান চৌধুরী শিমুল, সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য আবুল মনসুর টিটু, মিন্টু কুমার দে, সহ সম্পাদক আরজু ইসলাম বাবু, কামরুল হুদা পাভেল, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান খোরশেদ আলম বাবুল, ছাত্রলীগনেতা সানি দাশ, আতিকুর রহমান, জামিউল আলম নিশান প্রমুখ। সভায় প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন দীর্ঘ ১৪ বছর ২১ শে গ্রেনেডে হামলার রায়ে আমরা মোটামুটি সন্তুষ্ট। আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। আইনের সুশাসন প্রতিষ্ঠা পাচ্ছে। মুলত তারেক জিয়ার পরিকল্পনায় সেদিন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভানেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাসহ আওয়ামীলীগের সকল শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দকে হত্যা করে এদেশে আরেকটি ৭৫ এর ১৫ আগস্ট তৈরি করে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগকে চিরতরে ধ্বংস করতে চেয়েছিল। কিন্তু আল্লাহর অশেষ রহমতে সেদিন জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলার দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফোটানোর জন্য বেঁচে যায়। দীর্ঘ ১৪ বছর পর এ রায় ঘিরে জনমানুষের প্রত্যাশা ছিল এ হামলার মূল পরিকল্পনাকারী ও মূল হোতা তারেক জিয়াসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ফাঁসি দেওয়া হবে। সভায় বক্তারা ২১ শে আগস্ট হামলার প্রধান পরিকল্পনাকারী তারেক জিয়ার যাবজ্জীবন রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপীল করে ফাঁসির দাবী জানানো হয়। তিনি বলেন অবিলম্বে এই রায় বাস্তবায়ন করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে আহবান জানান। তিনি আগামী নির্বাচনে নৌকার পক্ষে সকলকে ঐক্যবদ্ধ থেকে স্বাধীনতা বিরোধীদের পরাস্ত করার আহবান জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*