গলাচিপায় এতিম শিশু ও অভিভাবকদের পুনর্মিলনী সভা অনুষ্ঠিত

গলাচিপায় এতিম শিশু ও অভিভাবকদের পুনর্মিলনী সভা অনুষ্ঠিত

নিয়ামুর রশিদ শিহাব, গলাচিপা (পটুয়াখালী) সংবাদদাতা ;; ইসলামিক রিলিফ বাংলাদেশ, গলাচিপা উপজেলা অফিস কর্র্তৃক আয়োজিত মা, এতিম শিশু সমাবেশ ও অভিভাবকদের পুনর্মিলনী সভা/১৮ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত বুধবার তারিখে গোলখালী ইউনিয়নের সুহরী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বেলা ১২ টায় উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার জনাব মোঃ গোলাম মোস্তফা এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভার প্রধান অতিথি হিসেব উপস্থিত ছিলেন গোলখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো: নাসির উদ্দিন। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন আমখোলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ কামরুজ্জামান মনির, সুহুরী হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক রাজা মিয়া, সহকারী প্রধান শিক্ষক মতিউর রহমান, হরিদেবপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, গোলখাল ইিউনিয়নের ২ নং ওর্য়াডের মেম্বার ও এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। অনুষ্ঠানে আমখোলা ও গোলখালী ইউনিয়নের ১৮০ জন এতিম শিশু ও তাদের অবিভাবকেরা উপস্থিত ছিল। দিনব্যাপী এ অনুষ্ঠানে শিশুদের চিত্রাঙ্কন, শিশু ও অভিভাবকদের জন্য বিভিন্ন খেলার আয়োজন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠান শেষে বিজয়ীদের মাঝে পুরুষ্কার বিতরণী করা হয়। প্রধান অতিথি বলেন, ইসলামিক রিলিফ বাংলাদেশ এতিমদের সামাজিক ও আর্থিক উন্নয়নের ভূমিকা নিয়ে ভূয়সী প্রশংসা করেন। ইসলামিক রিলিফের সহযোগিতা ছাড়া এ সকল শিশু হয়তো একদিন ঝড়ে পড়ে যেতো। ইসলামিক রিলিফ এতিম শিশুদের আর্থিক সহযোগিতার পাশাপাশি তাদের লেখাপড়ার বিষয়ে খোঁজ খবর নিয়ে তাদেরকে সঠিক দিক নির্দেশনার মাধ্যমে স্বাবলম্বী হতে সহায়তা করছে। আর এর মাধ্যমে তারা সামাজিক উন্নয়নে ব্যাপক অবদান রাখবে বলে তিনি বিশ্বাস করেন। তিনি শিশুদেরকে মাদকাসক্ত না হয়ে লেখাপড়ায় মনোনিবেশের জন্য পরামর্শ দেন। সভাপতি মহোদয় তার বক্তব্যে গলাচিপা উপজেলার যে সকলএতিম শিশু এখনও ইসলামিক রিলিফের কার্যক্রমের আওতাভুক্ত হয়নি তাদেরকে এ কার্যক্রমের অর্ন্তভুক্ত করার জন্য অনুরোধ জানান। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইসলামিক রিলিফ বাংলাদেশ এর গলাচিপা ফিল্ড অফিসের সহকারী প্রোগ্রাম অফিসার রেখা ইয়াছমিন । এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ইসলামিক রিলিফ বাংলাদেশ এর গলাচিপা ফিল্ড অফিসের মোঃ নূরআলম, মোঃ সোহেল রানা ও রাহিমা আখতার। উল্লেখ্য যে, ইসলামিক রিলিফ বাংলাদেশ স্পন্সরশীপ প্রোগ্রামের মাধ্যমে গলাচিপা উপজেলার ৪০০ জন এতিম শিশুকে তাদের মৌলিক চাহিদা পূরণসহ অর্থনৈতিক অবস্থার উন্নয়নের লক্ষ্যে আর্থিক ভাবে সহযোগিতা করে আসছে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*