ঝিনাইদহ-১ আসনে তৎপর আ.লীগ, বিএনপিতে সাড়া নেই

ঝিনাইদহ-১ আসনে তৎপর আ.লীগ, বিএনপিতে সাড়া নেই
শৈলকুপা প্রতিনিধি: দলে বড় ধরনের বিরোধ না থাকলেও ঝিনাইদহ-১(শৈলকুপা) আসনে মনোনয়নের আশায় জোর প্রচারণায় নেমেছেন বর্তমান সাংসদসহ আওয়ামী লীগের ডজন খানেক নেতা। গণসংযোগের পাশাপাশি নেতা-কর্মীদের সমর্থন আদায়ের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তাঁরা। মনোনয়ন প্রত্যাশী বিএনপিতেও আলোচনায় রয়েছেন ৩ জন নেতা। তারা হলেন, শৈলকুপা উপজেলা বিএনপি সভাপতি ও সাবেক সাংসদ সদস্য আব্দুল ওহাব, আন্তর্জাতিক মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক এ্যাড: আসাদুজ্জামান ও কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক জয়ন্ত কুমার কুন্ডু। মনোনয়ন প্রত্যাশীর নাম প্রকাশ হলেও প্রকাশ্যভাবে এখনো তাদের মাঠে দেখা যায়নি। তবে তারা বলছেন- দলীয় নির্দেশ ও অবস্থান বুঝে তারা নির্বাচনী প্রচারণার কাজ শুরু করবেন।
শৈলকুপা উপজেলার ১৪ টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা নিয়ে ঝিনাইদহ-১ আসন। বর্তমানে আসনটিতে ভোটার সংখ্যা ২লাখ ৭৩ হাজার ৫৫ জন। ১৯৯১ ও ১৯৯৬ সালে বিএনপির প্রার্থী আব্দুল ওহাব বিজয়ী হলেও ২০০১, ২০০৮ ও ২০১৪ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আব্দুল হাই সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন এবং এক বছর সরকারের মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্বপালন করেন।
এই আসনে আওয়ামী লীগের বর্তমান সাংসদ আব্দুল হাই জেলা আওয়ামী লীগের নির্বাচিত সভাপতিও। তাঁর নেতৃত্বে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ, পৌর আওয়ামী লীগসহ সহযোগী সংগঠনের সব শাখা ঐক্যবদ্ধ বলে জানা গেছে। নির্বাচনের ব্যাপারে সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়ে তাঁর নেতৃত্বে প্রতিটি ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডে কর্মীসভা, গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছে আওয়ামী লীগ।
এদিকে নেতা-কর্মীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এই আসনে আওয়ামী লীগের শক্তিশালী প্রার্থী আব্দুল হাই। তাঁর সময়ে নির্বাচনী এলাকায় বেশ কিছু দৃশ্যমান উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। দলের নেতা-কর্মীদের মধ্যে বড় ধরনের কোনো বিরোধ নেই।
আব্দুল হাই ছাড়াও আওয়ামী লীগ থেকে এই আসনে মনোনয়নের আলোচনায় রয়েছেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও বীর মুক্তিযোদ্ধা নায়েব আলী জোয়ার্দ্দার, বাংলাদেশ কৃষকলীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম দুলাল, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য পারভীন জামান কল্পনা, মিরপুর থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড: কাজী আজাদুল কবির(কাজী আজাদ), বাংলাদেশ আওয়ামী সাংস্কৃতিক ফোরাম(আসাফো) এর সভাপতি সাইদুর রহমান সজল সহ প্রায় ডজনখানেক নেতা।
উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান শিকদার মোশারফ হোসেন বলেন, আব্দুল হাইয়ের নেতৃত্বে অতীতের যেকোনো সময়ের তুলনায় বর্তমানে এখানে আওয়ামী লীগ সু-সংগঠিত। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী নির্বাচনেও আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসাবে জয়ী হবেন এবং এখানকার মানুষ তাঁকে আরও একবার নির্বাচিত করে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*