শেরপুরে দাখিল মাদ্রাসার ম্যানিজিং কমিটি নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ

শেরপুরে দাখিল মাদ্রাসার ম্যানিজিং কমিটি নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ

বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়ার শেরপুরের কানুপুর দাখিল মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনে বিধি বহির্ভুত নির্বাচনী তফসিল ও ভুয়া ভোটারসহ ভোটার তালিকা করে নির্বাচন বন্ধের জন্য গত ২৫ অক্টোবর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর তিনটি লিখিত অভিযোগ দায়েরসহ পুন:তফসিল ঘোষনা পূর্বক সুষ্ঠ নির্বাচনের দাবী করেছেন অভিভাকরা। অভিযোগ ও স্থনীয় সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার গাড়িদহ ইউনিয়নের কানুপুর দাখিল মাদ্রাসায় নতুন কমিটি করার জন্য একটি চুরান্ত ভোটার তালিকা প্রনয়ন করা হয়। তালিকাটি সম্পুর্ন মনগড়া। ওই তালিকায় একাধিক ভুয়া ব্যক্তিকে ভোটার করা হয়েছে। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা ও প্রিজাইডিং অফিসার মো. নজমুল হক গত ১৪ অক্টোবর নির্বাচনী তফসিল ঘোষনা করেন এবং ১৫ অক্টোবর থেকে মনোনয়ন পত্র বিক্রি শুরু করেন।
এদিকে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির বিরুদ্ধে ২৪ জন ভুয়া শিক্ষার্থী দেখিয়ে ভোটার তালিকা প্রস্তুত করে ৩ জন অভিভাবক সদস্যকে অবগত না করে গোপনে নির্বাচনী কার্যক্রম পরিচালনাসহ আরও অনেক অনিয়মের অভিযোগ এনে গত ২৫ অক্টোবর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. সিরাজুল ইসলাম বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন অভিভাবক সদস্য মো: লুৎফর রহমান, মো: তৌহিদুল ইসলাম সুমন আকন্দ ও মো: আব্দুল রহিম।
অভিযোগকারীরা বলেন, মাদ্রাসার বর্তমান সভাপতি একজন সরকারী কর্মচারী সে পুনরায় সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার আশায় অসৎভাবে মাদ্রাসার সুপারের সহিত যোগসাজসে তড়িঘড়ি করে একটি ত্রুটিপূর্ন ও অসম্পুর্ন ভোটার তালিকা তৈরী করেন এবং দশম শ্রেনীর ছাত্রছাত্রীর অভিভাবকদের ভোটার তালিকা থেকে নাম বাদ দিয়েছে যা নির্বাচন সংক্রান্ত সরকারী প্রজ্ঞাপনের প্রবিধান ৭ এর দফা (খ) এর সুস্পষ্ট লংঘন। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে।এ প্রসঙ্গে মাদ্রাসার সুপার মো. শফিকুল ইসলাম অভিযোগ স্বীকার করে বলেন, অন্যান্য সকল প্রতিষ্ঠান যাদের ছাত্র ছাত্রী সংখ্যা কম তারা সবাই একই পন্থা অবলম্বন করে থাকেন। তিনি আরও বলেন সরকারী নিয়ম অনুযায়ী ৩’শ ৫০ জন ছাত্র তৈরী করতে যা প্রয়োজন তাই করেছি। এ ব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. নজমুল হক বলেন, যেহেতু ম্যানেজিং কমিটি ভোটার তালিকা তৈরী করেছে, আমি প্রিজাইডিং অফিসার হিসেবে ভোটার তালিকা সঠিক কিনা তা দেখার কোনো সুযোগ নেই। এ বিষয়ে ইউএনও স্যার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পারবেন।এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ইউএনও) মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন- অভিযোগ অনুযায়ী তদন্ত করে বিধি মোতাবেক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*